জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর উত্তরাঞ্চলীয় ইরাকে নতুন আশ্রয় শিবির খুলেছে। পশ্চিমাঞ্চলীয় মসুল থেকে পালিয়ে আসা নতুন নতুন ইরাকি পরিবারকে আশ্রয় দেয়ার জন্য এ শিবির খোলা হয়েছে।

জেনেভায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেছেন ইউএনএইচসিআর বা ‘আনচারের’ মুখপাত্র। মসুলে চলমান জরুরি অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে এ নিয়ে এ রকম ১২টি শিবির খোলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।  শিবিরটি মসুল থেকে ৬০ কিলোমিটার পশ্চিমে আরবিল মহাসড়কের পাশে অবস্থিত।

নতুন শিবিরের ধারণ ক্ষমতা ৯ হাজার বলে  উল্লেখ করে বলা হয়েছে এতে এ পর্যন্ত ৯৬ পরিবারের ৫০০ ব্যক্তিকে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। চার সপ্তাহেরও কম সময় আগে ৩০ মানুষের ধারণ ক্ষমতাসহ একটি আশ্রয় শিবির খোলা হয়েছিল এবং এখন তা পুরোপুরি পূর্ণ হয়ে গেছে।

‘আনচার’ বলছে, মারাত্মক ঝুঁকির মুখে লোকজন মসুল থেকে পালিয়ে আসতে বাধ্য হচ্ছে। পালিয়ে আসা মানুষগুলো মসুলে ভারি বোমা বর্ষণ এবং প্রচণ্ড যুদ্ধের কথা জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য