ইয়েমেনের হাজার হাজার মানুষ রাজধানী সানায় সৌদি-মার্কিন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখিয়েছেন।

শুক্রবার বিকেলে সানা’র মাআরিব সড়কে এ বিক্ষোভ হয় এবং এতে ন্যাশনাল সালভেশন সরকারের কয়েকজন কর্মকর্তাও অংশগ্রহণ করেন। বিক্ষোভকারীরা ইয়েমেনের নিরপরাধ জনগণের ওপর সৌদি আরবের বর্বরোচিত আগ্রাসন এবং এই জুলুমের প্রতি আমেরিকার সমর্থনের তীব্র নিন্দা জানান।

তারা ‘সৌদি সন্ত্রাসবাদকে না বলুন’, ‘মার্কিন সন্ত্রাসবাদকে না বলুন’ ইত্যাদি স্লোগানে রাজধানী সানার আকাশ বাতাস কাঁপিয়ে তোলেন। বিক্ষোভকারীরা ইয়েমেনের জনগণকে হত্যার লক্ষ্যে সৌদি আরবকে নানারকম সমরাস্ত্র বিশেষ করে নিষিদ্ধ অস্ত্রসস্ত্র সরবরাহ করার জন্য মার্কিন সরকারকে দায়ী করেন।

একইসঙ্গে তারা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আসন্ন সৌদি আরব সফরের বিরোধিতা করে স্লোগান দেন। ইয়েমেনের সর্বোচ্চ বিপ্লবী কমিটির সভাপতি মোহাম্মাদ আলী আল-হুথি বিক্ষোভকারীদের এক সমাবেশে বলেন, ট্রাম্পের রিয়াদ সফর শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জনগণ যেন আবার রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর ইয়েমেনের বিরুদ্ধে সৌদি আগ্রাসন তীব্রতর হয়েছে। ট্রাম্প চলতি মাসের শেষ দিকে প্রথম বিদেশ সফরে ইহুদিবাদী ইসরাইেলর পাশাপাশি সৌদি আরব যাবেন বলে কথা রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য