হাকিমপুর (দিনাজপুর) সংবাদদাতাঃ দিনাজপুরের হাকিমপুরে বিপ্লবপাল নামক এক দোকান কর্মচারী অপহৃত হবার ১৩ দিন পর বুধবার রাত ২ টার দিকে অপহরণকারীরা তাকে বন্দি দশা থেকে মক্তি দিয়েছে। সে পৌর এলাকার পালপাড়া মহল্লার সুরেন পালের ছেলে।

বিপ্লব পাল জানান, সে উপজেলার হিলি বাজারের স্বপন পালের দোকানে চাকুরি করেন। গত ২৭ শে এপ্রিল রাত ৮ টার দিকে একজন অপরিচিত লোক স্বপন পালের দোকানে এসে বিপ্লব পালকে দোকারে পাশে ডেকে বলেন, তোমাকে পাঁচ মিনিটের জন্য একটু পালপাড়া যেতে হবে।

এরপর ওই ব্যক্তিসহ অপরএক ব্যাক্তি সাদা পোষাকে তাকে একটি মোটর সাইকেলে উঠিয়ে নিয়ে সেখানে না গিয়ে হিলি-দিনাজপুর সড়ক পথে ডাঙ্গাপাড়া বাজারের উত্তর পার্শে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। এরপর তারা কাপড় দিয়ে তার দু’চোখ বেধে ও হাত কড়া পরিয়ে একটি গাড়িতে উঠিয়ে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গিয়ে একটি কক্ষে আটকে রাখেন। সেখানে তারা তাকে জিজ্ঞাসা করেন।

বিপ্লব ছাড়া তার আর কোন নাম রয়েছে কি-না। জবাবে তার আর কোন নাম নেই বলে জানালেও তারা তার এ কথায় সন্তুষ্ট হতে না পেরে পরদিন ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত চলে উপর্যুপোরি জিজ্ঞাসাবাদ। এতেও কোন তথ্য বেরিয়ে না আসায় তাকে আর কোন জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় নি।

পরিশেষে আবারও গত বুধবার (অপহরণের ১৩ দিনপর) তারা তার দু’চোখ বেঁধে ও হাত কড়া পরিয়ে একটি গাড়িতে উঠানোর পর নির্জন স্থানে একটি সড়কের পার্শে সুস্থ অবস্থায় ছেড়ে দেয়। তখন সে বুঝতে পারে স্থানটি হিলি-দিনাজপুর সড়কের বিরামপুর উপজেলার বেগমপুর। তখর রাত প্রায় ২ টা। এরপর রাতেই সে বাড়ি ফিরে আসেন।

কে বা কারা কী উদ্যোশ্যে অপহরণ করেছিল এমন প্রশ্নের জবাবে সে বলে কারনটা তার কাছেও পরিষ্কার নয়। এবং তারা প্রশাসনের লোক হবে বলে আমার কাছে মনে হয়েছে। তবে তার সঙ্গে মোবালই ফোনটি ফেরত দেয় হলেও সিমকার্ডটি ফেরত দেয়া হয়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য