ইসলামিক স্টেটের (আইএস) জঙ্গিদের হটিয়ে সিরিয়ার তাবকা শহর ও সংলগ্ন তাবকা বাঁধের দখল নেওয়া দাবি করেছে দেশটির যুক্তরাষ্ট্র-সমর্থিত বিদ্রোহীরা।

বুধবার ইউফ্রেতিস নদীর এই বাঁধটি ও সংলগ্ন শহরটির দখল করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দ্য সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্স (এসডিএফ) ।

শহর ও বাঁধটির দখল নেয়ার জন্য গত কয়েক সপ্তাহ ধরে আইএসের জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াই করছিল কুর্দি ও আরব যোদ্ধাদের জোট এসডিএফ।

তাবকা থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরের শহর রাক্কা আইএসের প্রধান শক্তিকেন্দ্র। সেখানে হামলার চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে এসডিএফ। তাবকা দখলে আসায় সেই পথে অনেকটা এগিয়ে গেল যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনীর বিমান হামলা ও তাদের স্পেশাল ফোর্সগুলোর সমর্থনপুষ্ট এসডিএফ।

এসডিএফের মুখপাত্র তালাল সিলো বলেছেন, “এসডিএফের বীরদের আত্মত্যাগ ও সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনীর পূর্ণ ও অপরিসীম সমর্থনের জন্য তাবকা দখল সম্ভব হয়েছে, তাদের ধন্যবাদ।

এসডিএফের উপদেষ্টা নাসের হাজি মনসুর জানিয়েছেন, এসডিএফ আইএসের জঙ্গিদের হটিয়ে দেয়ার পর তাবকা শহর ও সংলগ্ন বাঁধ ‘পুরোপুরি মুক্ত’ হয়েছে।

এক টুইটার পোস্টে তাবকা দখল করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন আইএস-বিরোধী বিশ্বজোটে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্টের বিশেষ দূত ব্রেট ম্যাকগুর্ক।

তাবকার কাছে এসে রাক্কা অভিযানের জন্য এগোতে থাকা এসডিএফের অগ্রগতি শ্লথ হয়ে পড়েছিল। বিদ্রোহী বাহিনীটি তাবকা ঘিরে ফেললেও এগিয়ে যাওয়ার গতি প্রায় থেমে গিয়েছিল। দুই সপ্তাহ আগে তারা তাবকার সব এলাকার দখল করে নিলেও বাঁধ এলাকায় জড়ো হওয়া জঙ্গিদের হটাতে বেগ পেতে হয়।

মার্চের শেষ দিকে আকাশ পথে এসডিএফ যোদ্ধাদের উড়িয়ে নিয়ে ইউফ্রেতিস নদীর দক্ষিণ তীরে নামিয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী। নিকটবর্তী গুরুত্বপূর্ণ একটি বিমান ঘাঁটি দখলে নেয়ার মাধ্যমে সেখান থেকেই তাবকা অভিযান শুরু করেছিল এসডিএফ।

নেটো মিত্র তুরস্কের প্রবল আপত্তি সত্বেও চলতি সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র এসডিএফের অন্যতম প্রধান অঙ্গ কুর্দি ওয়াইপিজি বেসামরিক বাহিনীকে অস্ত্র সরবরাহ করার অনুমোদন দিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য