দেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে যুবলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে ৫ জন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গত ৮ মে সোমবার সন্ধা ৭টায় ঘুঘুরাতলী বাসষ্ট্যান্ডের রানীরবন্দর রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সোলায়মান গনি (৪৫), সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আরফিন শাহ (৪২), আব্দুলপুর ইউপি সদস্য নুরুল আমিন শাহ (৪৪), যুবলীগ কর্মী নূরে আলম বকুল (৩৮) ও পিযুষ চন্দ্র রায় (৩০)। জানা গেছে, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সোলায়মান গনির বাড়ীতে কতিপয় সন্ত্রাসী গত ২ মে রাত সাড়ে ৮টায় হামলা চালিয়ে স্ত্রী লাকিয়ারাকে আহত করে গলার স্বর্নের চেইন ছিনতাই করে চলে যাওয়ার সময় বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

এ ঘটনায় গত ৪ মে সোলায়মান বাদী হয়ে যুবলীগের কর্মীসহ ৯ জন ও অজ্ঞাতনামা ৫ হতে ৬ জনকে আসামী করে চিরিরবন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। অহেতুক হয়রানি মুলক মামলা দায়েরের প্রতিবাদে গত ৮ মে যুগলীগের কর্মীসহ বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল করে। এরই জের ধরে গত সোমবার রাতে ঘুঘুরাতলী বাসষ্ট্যান্ডের রানীরবন্দর সড়কে দু’পক্ষের কথা কাটাকাটির শুরু হলে পাল্টাপাল্টি হামলা ও মারামারি শুরু হয়।

এ ব্যাপারে চিরিরবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ হারেসুল ইসলাম জানান, উপজেলা আওয়ামীগের সভাপতি ও সাধারন  সম্পাদকের সাথে আলোচনা করে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত দু’পক্ষের কেউ অভিযোগ দাখিল করেনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য