ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ আগামী ২৫ আগষ্টের মধ্যে খনি বিরোধী নেতৃবৃন্দের নামে দায়ের করা  মামলা প্রত্যাহার করা না হলে আগামী ২৬ আগষ্ট ফুলবাড়ীতে মহাসমাবেশ ও রাজপথ, রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি ঘোষনা করেছেন, তেলগ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি।

মঙ্গলবার দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে খনি বিরোধী আন্দোলনকারী নেতৃবৃন্দের নামে, এশিয়া এনার্জি কোম্পানীর দায়ের কৃত মামলা প্রত্যাহার ও এশিয়া এনার্জিকে ফুলবাড়ীসহ দেশ থেকে  বহিস্কারের দাবীতে বিকেল চারটা থেকে সন্থা ছয়টা প্রর্যন্ত অবস্থান ধর্মঘট পালন কালে এই কর্মসূচি ঘোষনা করেছেন, তেলগ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির ফুলবাড়ী শাখার আহবায়ক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম জুয়েল।

তেলগ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির ফুলবাড়ী শাখার উদ্যোগে বিকেল চারটা থেকে সন্ধা ছয়টা প্রর্যন্ত পৌর শহরের নিতলা মোড়ে দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কের উপর এই অবস্থান কর্মসূচিতে তেলগ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির ফুলবাড়ী শাখার আহবায়ক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম জুয়েল এর সভাপতিত্বে প্রধান অথিতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, তেলগ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদওৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির কেন্দ্রিয় সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ।

এতে বিশেষ অথিতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য ও জাতীয় গণফ্রন্ড এর সম্বনয়ক টিপু বিশ্বাস, বাংলাদেশ কমনিউসট পাটির কেন্দ্রিয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স, বাংলাদেশ সমাজ তান্ত্রিক দলের কেন্দ্রিয় নেতা বজলুর রশিদ ফিরোজ, ইউনাইটেড কমনিউসট পাটির নেতা মোজাফ্ফর হোসেন, গণসংহতি আন্দোলনের সম্বনয়ক জোনায়েদ সাকি,গণতান্ত্রিক মজদুর পাটির সম্বনয়ক ডাঃ সামছুল আলম, দেলগ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির দিনাজপুর জেলা শাখার আহবায়ক আলতাব হোসেন সদস্য এ্যাডভোকেট মেহেরুল ইসলাম,ফুলবাড়ী শাখার সদস্য সচিব সাবেক কাউন্সিলর জয় প্রকাশ গুপ্ত,আন্দোলনের অন্যতম নেতা হামিদুল হক, প্রভাষক জারজিজ আহম্মেদ, সঞ্জিব কুমার জিতু, সাবেক সদস্য সচিব এসএম নুরুজ্জামান প্রমুখ।

এদিকে দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কের উপর বসে অবস্থান ধর্মঘট পালন করায়, বিকেল চারটা থেকে সন্ধা ছয়টা প্রর্যন্ত দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কে যানবহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে, এই কারনে উভায় দিকে শত শত যান বহন আটকা পড়ে এতে করে চরম দুর্ভোগে পড়ে দুর পাল্লার যাত্রীরা। সন্ধা ছয়টায় অবস্থান ধর্মঘট কর্মসুচি শেষ হলে মহাসড়কের যান চলাচল সাভাবিক হয়ে উঠে।

উল্লেখ্য গত ২০১৪ সালের ২৬ নভেম্বর এশিয়া এনার্জির প্রধান গেরিএনলাই ফুলবাড়ীতে এসে কোম্পানীর লোক জনের সাথে মতবিনিময় করে, এসময় খনি বিরোধী আন্দোলনকারীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে, এই ঘটনায় উত্তেজিত আন্দোলনকারী জনতার রোষানলে পড়ে এশিয়া এনার্জির প্রধান গেনিএনলাই ও তার সাথে থাকা কমৃকর্তারা।

আন্দোলনকারী জনতার রোষানল থেকে রক্ষাপেতে গেরিএনলাইসহ তার সাথে থাকা কর্মকর্তারা স্থানীয় প্রসাশনের সহযোগীতায় ফুলবাড়ী ত্যাগ করে, এরেই মধ্যে গেনিএনলাইয়ের বহন কৃত দু’টি গাড়ী ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় ওই বছরের ডিসে¤ব^র মাসে এশিয়া এনার্জির মাঠ কর্মকর্তা সাইদুর রহমান বাদি হয়ে দিনাজপুর প্রথম শ্রেনীর ম্যাজিষ্ট্রেড আদালতে আন্দোলনকারী ১৯ জন নেতাকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে।্ এর কয়েকদিন পরেই একশ কোটি টাকার ক্ষতিপুরন দাবী করে আরো একটি মামলা দায়ে করে, বর্তমানে মামলা দু’টি বিচারাধীন আছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য