আমেরিকা এবং জর্দান বার্ষিক যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করেছে। ‘এগার লায়ন’ নামের এ মহড়ায় ২০ দেশের সাত হাজার চারশ’র বেশি সেনা অংশ নিচ্ছে।

মার্কিন এবং জর্দানের কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে সন্ত্রাসবাদের হুমকির মুখে দেশ দু’টির মধ্যে সহযোগিতা জোরদার করতে এ মহড়ার আয়োজন করা হয়েছে। মহড়ায় নেতৃত্ব দিচ্ছেন জর্দান সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খালিদ আশ-শারা।

এদিকে, মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনাবাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার মেজর জেনারেল বিল হিকম্যান বলেছেন, চলতি বছরের মহড়া এ যাবৎকালের সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে জটিল।

চলতি বছরের মহড়ায় প্রথমবারের মতো অন্তর্ভুক্ত হবে গ্লোবাল স্ট্রাইক মিশন বা বিশ্বের অন্যত্র আঘাত হানার অনুশীলন। এতে পরমাণু বোমাবহনে সক্ষম মার্কিন বিমানবাহিনীর দু’টি কৌশলগত বোমারু বিমান বি-১বি অংশ নেবে। সীমান্ত নিরাপত্তা, সাইবার প্রতিরক্ষা এবং কমান্ড ও কন্ট্রোল মিশন এ মহড়ার অন্যতম অনুশীলনের বিষয় বলেও জানানো হয়েছে।

মহড়ায় যেসব দেশ অংশ নিচ্ছে তার মধ্যে ব্রিটেনে, জাপান, কেনিয়া ও সৌদি আরব রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য