দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ খেকে চলতি মৌসুমে বিদেশে রপ্তানীর লক্ষ্যে আমের বাগানের পরিচর্যা করে যাচ্ছে বাগানীরা। বিষ মুক্ত আমের জন্য তারা সেক্স ফেরোমন ফাঁদ  ও ফ্রুট ব্যাগিং পদ্ধতি  ব্যবহার করছে। বাগানীদের বিষ মুক্ত আম ও লিচু চাষের জন্য এ ডি পি’র অর্থায়নে ও নবাবগঞ্জ কৃষি অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন একটি প্রকল্প গ্রহন করা হয়েছে।

ওই প্রকল্পে বাগানীদেরকে বিষমুক্ত আম ও লিচু চাষের উপর প্রশিক্ষন প্রদান সহ সেক্স ফেরোমন ফাঁদের উপকরন দেয়া হয়েছে। উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামের  আম বাগান মালিক ও মাহমুদপুর ফল চাষী সমবায় সমিতি লিঃ এর সভাপতি জিল্লুর রহমান জানান চলতি মৌসুমে তার ৬ একর জমিতে আমের বাগান রয়েছে।

বাগানে আমের গাছের সংথ্যা ৩১৫টি। এর মধ্যে হিম সাগর, নেংড়া, রুপালী, মল্লিকা ও হাড়িভাঙ্গা জাতের আম গাছ রয়েছে। যা থেকে তিনি গত মৌসুমে সাড়ে ৩ লাখ টাকার আম বিক্রি করেছেন।

তিনি আরও জানান তাদের সমিতির আওতায় ১০০ জন সদস্য রয়েছে। ওই ১০০ জন সদস্য চলতি মৌসুমে ১০০ মেঃ টন আম বিদেশে রপ্তানীর সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু রেজা মোঃ আসাদুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান বাগানীদের আম এবারে বিদেশে রপ্তানীর আশা রয়েছে। সেই লক্ষ্যে তারা বাগানীদের  বিষ মুক্ত আম উৎপাদনের বিষয়ে পরামর্শ ও প্রশিক্ষন দিয়ে আসছেন।

তিনি আরও জানান চলতি মৌসুমে উপজেলা এলাকায় ৮০২ হেক্টর জমির উপর ১১৩৭ টি বাগান রয়েছে।  যা  থেকে উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২৩ হাজার ৫১৫ মেঃ টন আম। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বজলুর রশীদ জানালেন নবাবগঞ্জ থেকে এবারে বিদেশে আম রপ্তানী করা হবে এটা একপ্রকার নিশ্চিত।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য