চিবোক গার্ল হিসেবে পরিচিত নাইজেরিয়ার এই মেয়েদেরকে অপহরণের ঘটনা বিশ্বজুড়ে ব্যাপক প্রতিবাদ-বিক্ষোভের জন্ম দেয় এবং সামাজিক মাধ্যমে তাদের মুক্তির দাবিতে ক্যাম্পেইন চলে।

নাইজেরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চল থেকে মোট ২৭৬ জন মেয়েকে অপহরণ করেছিল বোকো হারাম। সরকারের সাথে আলোচনার ভিত্তিতে এই ৮০ জনকে মুক্তি দেয়া হল তিনবছর পর।

কিন্তু এখনও ১৯৫টি মেয়ে নিখোঁজ। ২০১৪ সালের এপ্রিলে চিবুকের সরকারি স্কুলে বোকো হারাম জঙ্গিরা হামলা চালালে ৫০ জনের মত মেয়ে পালাতে সক্ষম হয়।

গত বছর রেডক্রসের মাধ্যমে আলাপ-আলোচনার পর ২১ জনকে মুক্তি দেয়া হয়েছিল।

এইসব মেয়েদের ফিরিয়ে আনার ক্যাম্পেইনকে সাবেক মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা এবং অন্য অনেক হলিউড তারকা সমর্থন করেন।

চিবোকের অপহৃত মেয়েদের বেশিরভাগই খ্রিস্টান ধর্মের অনুসারী।কিন্তু তাদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করতে এবং অপহরণকারীদের বিয়ে করতে বাধ্য করা হয়।

২০০২ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে নাইজেরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বিশাল এলাকা দখল করে ইসলামী খিলাফত প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে লড়াই করে আসা বোকো হারাম গত কয়েকবছরে হাজার হাজার মানুষকে অপহরণ করেছে।

আর হত্যা করেছে ৩০ হাজার এর বেশি মানুষকে ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য