কাশী কুমার দাস, দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুরের বিশিষ্ট ঠিকাদার বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার নির্বাহী সদস্য গৌর চন্দ্র শীলের প্রাননাশের হুমকিদাতা ও চাঁদাবাজ কাউন্সিলর ২নং ওয়ার্ড পৌর কাউন্সিলর মোস্তফা কামাল মুক্তি বাবুর দ্রুত বিচার আইনে শাস্তির দাবীতে দিনাজপুর প্রেসক্লাব সম্মুখ সড়কে বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়।

মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন পূজা উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক বিধান চক্রবর্তী বাসু, এইচআরসিবিএম দিনাজপুর চেপ্টারের সাধারণ সম্পাদক উত্তম রায়, পূজা উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর সদর থানার সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় হিন্দু মহাজোট দিনাজপুর জেলা শাখার আহ্বায়ক বিভাষ বিশ্বাস, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার নির্বাহী সদস্য প্রেম নাথ রায়, অরুণ সরকার, গীতা সংঘ সদর থানার সভাপতি সুনিল চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক অতুল চন্দ্র বর্মণ, পূজা উদযাপন পরিষদের নির্বাহী সদস্য বিজয় কৃষ্ণ কুন্ডু ভাইয়া, সিনিয়র সহকারী আইনজীবী সমিতি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য খগেন্দ্র নাথ শীল, এইচআরসিবিএম দিনাজপুরের নেতা গৌরঙ্গ রায়, বাচ্চু কুন্ডু, শিশির সরকার, ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, ১১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, বিশিষ্ট সমাজসেবক মোঃ সালাহ উদ্দিন আহমেদ।

বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তফা কামাল মুক্তি বাবু বিভিন্ন কাজের বিনিময়ে চাঁদা দাবী করে ওয়ার্ডবাসীকে হয়রানি করে আসছিল। তার সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে এলাকাবাসী সন্ত্রস্থ হয়ে পড়ে। ঠিকাদার গৌর চন্দ্র শীলের নিকট ঠিকাদারী কাজের জন্য ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে।

এ ব্যাপারে গৌর চন্দ্র শীল কোতয়ালী থানায় মামলা দায়ের করলে কোতয়ালী থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। সেই থেকে তার লোকজন বিভিন্নভাবে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছে। আমরা কাউন্সিলর মোস্তফা কামাল মুক্তি বাবুর দ্রুত বিচার আইনে শাস্তি দাবী জানাচ্ছি। উল্লেখ্য, ১১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, কেন্দ্রীয় ফুলতলা শ্মশান ও হিন্দু সৎকা সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট ঠিকাদার গৌর চন্দ্র শীল শহরের সাধুরঘাটে ৬ লাখ টাকার প্যাকেজে উন্নয়নমূলক ঠিকাদারী কাজ শুরু করলে ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তফা কামাল মুক্তি বাবু ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে প্রতিনিয়ত কাজে বাধা সৃষ্টি করতে থাকে।

নিরুপায় হয়ে গত মঙ্গলবার রাত ১২টার পর কোতয়ালী থানায় গৌর চন্দ্র শীল পৌর কাউন্সিলর মুক্তি বাবুর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করে। যার নং-৯ তারিখ-৩ মে ২০১৭ইং। ধারা-৩৮৫, ৩৭৯ ও ৫০৬ (২)। উক্ত মামলায় ৩জন সাক্ষি হচ্ছে পৌরসভার মেয়র আহমেদুজ্জামান ডাব্লু, ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আশরাফুল আলম রমজান এবং ১১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য