অনেকদিন ধরেই তেমন আলোচনায় ছিলেন না বলিউড অভিনেত্রী কাটরিনা কাইফ। বিশেষ করে ‘ধুম-৩’ এর পর তার ক্যারিয়ারটাও খুব একটা ভালো যাচ্ছে না। মধ্যে দুটি ছবি ফ্লপের খাতায় নাম লেখানোর পর কাটরিনাও মিডিয়ার সঙ্গে তেমন একটা কথা বলেন না।

তবে কদিন আগেই নীরবতা ভেঙে ইনস্টাগ্রামে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেন। শুধু তোয়ালে জড়িয়ে তোলা এ ছবিটির মাধ্যমে বেশ বিতর্কের মুখেও পড়েন তিনি। আলোচনায় আসতেই তিনি এরকমটি করেছেন বলে মনে করছেন অনেকে। এবার আরেক অদ্ভুত কা- ঘটালেন এ অভিনেত্রী।

কাটরিনা জানিয়েছেন, বলিউডে অভিনয় করতে হলে নাকি বিশেষ কিছু আদান-প্রদান করতে হয়। গিভ অ্যান্ড টেকের দুনিয়া হলো বলিউড। আর তার এমন মন্তব্যে পুরো বলিউডবাসীই অবাক হয়েছে। কারণ শীর্ষ একজন অভিনেত্রীর কাছ থেকে হঠাৎ করে এরকম মন্তব্য আশা করেনি কেউ।

তাহলে রহস্যটা কি? কাটরিনা একটি বলিউডভিত্তিক চ্যানেলকে দেয়া দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে বলেন, আমি ভাবতাম হয়তো বলিউড কিছুটা ভিন্ন। কিন্তু এখানে আসার পর থেকেই মনে হয়েছে এখানে গিভ অ্যান্ড টেক ছাড়া কিছু হয় না। যেকোনো কিছুরই আদান-প্রদান করতে হয়। না হলে টিকে থাকা যায় না।

এরকম বহু প্রস্তাব আমার কাছেও এসেছে। কিন্তু আমি পা বাড়াইনি। দেখি কতদিন টিকে থাকতে পারি। সেটা দর্শকদের ওপরই নির্ভর করবে। কাটরিনার এমন বোমা ফাটানো বক্তব্য বলিউডের সংবাদ মাধ্যমগুলো ফলাও করে প্রচার করছে। অনেকেই বলাবলি করছেন হতাশা থেকেই এমন সব মন্তব্য করছেন তিনি। আবার অনেকে কাটরিনার জন্য দুঃখ প্রকাশও করছেন। আবার কেউ কেউ ভাবছেন আলোচনায় আসার জন্যই এমন মন্তব্য করেছেন কাটরিনা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য