মার্কিন সরকারের অর্থায়নে প্রেসিডেন্ট-কন্যা ইভানকা ট্রাম্পের একটি বইয়ের প্রচারণা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রেসিডেন্ট-কন্যার ব্যক্তিগত বইয়ের প্রচারণার সরকারি অর্থের ব্যবহারে মার্কিন নীতি লঙ্ঘিত হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ভয়েস অব আমেরিকায় ‘উইমেন হু ওয়ার্ক: রিরাইটিং দ্য রুলস ফর সাকসেস’ নামে প্রকাশিত ওই বইটির প্রচারণা চালানো হয়। ওই সংবাদমাধ্যম সরকারি অর্থে পরিচালিত হয়। ইভানকার মার্কিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েট প্রেস বইটির প্রকাশক। এতে কর্মজীবী নারীদের শ্রমপরিবেশ নিয়ে কথা বলেছেন ইভানকা।

বলা হচ্ছে, ‘উইমেন হু ওয়ার্ক: রিরাইটিং দ্য রুলস ফর সাকসেস’ বইটির লভ্যাংশ দাতব্য কাজে ব্যয় করা হবে। তবে অনেকে এর নেপথ্যে ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য থাকার আশঙ্কা করছেন। অবশ্য আনুষ্ঠানিকভাবে এই বইয়ের প্রচারণা নিজেকে সংশ্লিষ্ট রাখেননি ইভানকা। তিনি ঘোষণা দিয়েছেন, সংবাদমাধ্যমের সামনে আসবেন না। তবে অনেকে ভয়েস অফ আমেরিকায় প্রচারণার বিষয়টি সরকারি নীতি বহির্ভূত বলে মন্তব্য করেছেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে আরও জানা গেছে, কর্মস্থলে নারীরা কিভাবে আরও এগিয়ে যাবে বইটিতে তা নিয়ে কথা বলেছেন ইভানকা। তাদের পারিবারিক ও ব্যক্তিগত অর্জনও আলোচিত হয়েছে ওই বইতে। ব্যবসা নিয়ে বিতর্কে জড়ানোর বিষয়টি ইভানকার ক্ষেত্রে এবারই প্রথম ঘটেনি। এর আগে সবশেষ গত ফেব্রুয়ারিতে ফক্স এ- ফ্রেন্ডস অনুষ্ঠানে ট্রাম্পের ক্যম্পেইন ম্যানেজার কেলিয়ানে কনওয়ে ইভানকার পণ্যের প্রচারণা করলে ভয়াবহ বিতর্ক সৃষ্টি হয়। ওই অনুষ্ঠানের সাক্ষাৎকারে নর্ডস্ট্রম ডিপার্টমেন্ট স্টোরে থাকা ট্রাম্প ও ইভাঙ্কা ব্র্যান্ডের পণ্য ক্রয়ের আহ্বান জানিয়েছিলেন কেলিয়ানে। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘সবাই ইভানকার পণ্য কিনুন। এটা ভালো’।

ডোনাল্ড ট্রাম্পও নিজেও সে সময় মেয়ের পক্ষ নিয়ে টুইট করেন। হোয়াইট হাউসে তার মুখপাত্র শন স্পাইসার আরও এক ধাপ এগিয়ে মন্তব্য করেন, ডিপার্টমেন্টাল স্টোরগুলো ট্রাম্পের পণ্য বিক্রিতে অস্বীকৃতি প্রেসিডেন্টের উপর সরাসরি আক্রমণের সামিল। হোয়াইট হাউসে ইভানকার প্রত্যক্ষ প্রভাবের শুরু মার্চে। সে সময় তাকে প্রেসিডেন্টের বিশেষ সহকারী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য