জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল সোচির কৃষ্ণ সাগর অবকাশ কেন্দ্রে মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাত করবেন। ২০১৫ সালের পর এটি তার প্রথম রাশিয়া সফর। তার এ সফরকে বার্লিন ও মস্কোর মধ্যে পুনরায় আলোচনা শুরুর ইঙ্গিত বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। খবর এএফপি’র।

স্নায়ুযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে মস্কোর সম্পর্কের চরম অবনতি ঘটার প্রেক্ষাপটে রাশিয়া ও জার্মানির এ দুই নেতা সেখান থেকে বেরিয়ে এসে এ দুই দেশের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে আগ্রহী হচ্ছেন। ২০১৪ সালে ইউক্রেন ভূ-খন্ড ক্রিমিয়া দখল এবং দেশটির পূর্বাঞ্চলের রুশপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সমর্থন জানানোর জন্য মস্কোর বিরুদ্ধে আরোপ করা ইউরোপীয় ইউনিয়নের অবরোধের প্রতি মের্কেল দৃঢ় সমর্থন জানিয়েছিলেন।

এর প্রতিক্রিয়ায় মস্কোও পশ্চিমা দেশ থেকে আসা কৃষি পণ্যের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। গত সপ্তাহে রাশিয়ায় প্রথম সরকারি সফরে থাকাকালে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রধান ফেডারিকা মোঘারিনি জোরদিয়ে বলেন, উভয় পক্ষের মধ্যে সহযোগিতার ক্ষেত্রে বরফ গললেও ইউক্রেন ও সিরিয়াসহ নানা বিষয়ে মতপার্থক্যের কারণে অগ্রগতি বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে।

গত মার্চ মাসে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিগমার গাব্রিয়েলের সঙ্গে বৈঠককালে পুতিন এ দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ক সম্পূর্ণ স্বাভাবিক করার কথা বলার পর মের্কেলের সফরটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য