দিনাজপুর সংবাদাতাঃ যমুনা অটো রাইস মিলের ভয়াবহ বয়লার বিস্ফোরণ ও তৎপরবর্তী পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে ২৯ এপ্রিল শনিবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব ভবনে সম্মিলিত ভাবে এক জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন দিনাজপুরের বাম সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দ।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জেলা জাসদের সভাপতি এ্যাডঃ লিয়াকত আলী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত শুক্রবার গোপালগঞ্জ হাটে চাতাল ও চাউল কল শ্রমিক সংগ্রাম কমিটি যমুনা অটো রাইস মিলের বয়লার বিস্ফোরনে নিহত ও আহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ এবং মালিকের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে ডাকা সভায় যমুনা অটো রাইস মিলের মালিক সুবল ঘোষের লেলিয়ে দেয়া সন্ত্রাসী রিজু মেম্বার, জুয়েল, বাবু, নাদিমসহ ৮/১০ জন একটি সংঘবদ্ধ দল হামলা ও ভাংচুর করে।

কিন্তু যতই এসব করা হোক না কেন, যমুনা অটো রাইস মিলের আহত-নিহতদের ক্ষতিপূরণ ও মালিকের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা সিপিবির সভাপতি এ্যাডঃ মেহেরুল ইসলাম, জাতীয় শ্রমিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সহিদুল ইসলাম শহীদুল্লাহ, বাসদ (মার্কসবাদী) দিনাজপুর’র সদস্য এ.এস.এম মনিরুজ্জামান, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য খন্দকার আশরাফুজ্জামান, ইউনাইটেড কমিউনিষ্ট লীগ দিনাজপুর’র সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আলী সরকার, বাসদ নেতা সারওয়ারুল ইসলাম ক্লিপ্টন, জাসদের দপ্তর সম্পাদক এ্যাডঃ ইন্দ্রজিৎ রায় অনীক, বাসদ (মাহবুব) নেতা হারুন উর রশিদ, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন দিনাজপুর জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক জামিরুল ইসলাম, শ্রমিক সামিউল, জিকরুল হক, জলেশ্বর রায় প্রমূখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, গোপালগঞ্জ এলাকায় চালকল শ্রমিকদের মধ্যে মালিক পক্ষ যে ভীতি তৈরী করেছে, তা দুর করে শ্রমিকদের চাকুরি, জীবন ও সম্পদের নিরপত্তা নিশ্চিত করতে প্রশাসনকে তৎপর হতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য