সিরিয়ায় উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে বিদেশি মদদপুষ্ট অন্তত ৪০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। জঙ্গিদের সমর্থক লন্ডন-ভিত্তিক একটি কথিত মানবাধিকার সংগঠন এ খবর জানিয়েছে।

সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস বলেছে, রাজধানী দামেস্কের কাছে পূর্ব ঘোউতা এলাকায় শুক্রবার এ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। জাবহাত ফতেহ আশ-শাম ও ফাইলাক আর-রহমান গোষ্ঠীর সঙ্গে জেইশুল ইসলাম জঙ্গি গোষ্ঠী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

এতে জেইশুল ইসলামের ১৫ জন এবং অন্য দুই গোষ্ঠীর ২৩ জঙ্গি নিহত হয়েছে। নিহত বাকি দু’জন বেসামরিক নাগরিক যারা দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে নিহত হয়েছেন।  রক্তক্ষয়ী এ সংঘর্ষে দু’পক্ষের আরো অন্তত ৭০ জন আহত হয়েছে।

সৌদি আরব সমর্থিত জেইশুল ইসলাম জঙ্গি গোষ্ঠীর বরাত দিয়ে অবজারভেটরি জানিয়েছে, এই গোষ্ঠীর একটি রসদবাহী গাড়ির বহর প্রতিদ্বন্দ্বী গোষ্ঠীগুলো আটক করলে সংঘর্ষ শুরু হয়।  কিন্তু ফাইলাক আর-রহমান গোষ্ঠী এক বিবৃতিতে এই অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি করেছে, পূর্ব ঘোউতা এলাকায় তাদের ওপর হামলা চালানোর জন্য জেইশুল ইসলাম বহু দিন ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছিল। শুক্রবারের সংঘর্ষে নিজেদের একজন কমান্ডার নিহত হওয়ার কথা জানিয়েছে ফাইলাক।

সিরিয়ায় তৎপর উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে প্রায়ই এ ধরনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। গত ফেব্রুয়ারিতে দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশে জাবহাত ফতেহ আশ-শাম এবং জুন্দুল আকসা গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে প্রায় ৭০ জঙ্গি নিহত হয়েছিল। একই প্রদেশে জানুয়ারি মাসে কয়েকটি জঙ্গি গোষ্ঠীর সঙ্গে ফতেহ আশ-শামের তীব্র সংঘর্ষে কয়েক ডজন সন্ত্রাসী নিহত হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য