অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা ও জনপ্রিয় গায়ক আরমান মালিকের সাইবার যুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ছিল সরগরম। বিষয়, কানাডীয় পপ তারকা জাস্টিন বিবারের কনসার্টে গায়কদের চেয়ে অভিনয়শিল্পীদের প্রাধান্য পাওয়া।

এই নিয়ে আক্ষেপ করে ভারতীয় গায়ক কৈলাস খের গতকাল একটি টুইট করেছিলেন। তাঁর কথার সুর ধরেই নবীন গায়ক আরমান মালিকও একটি টুইট করেছেন। সেই টুইটের জবাব দিতে ফিরতি টুইট করেন সোনাক্ষী সিনহা।

কারণ, শুরু থেকেই জাস্টিন বিবারের কনসার্টে সোনাক্ষীর গান পরিবেশন করার কথা ছিল। এভাবে টুইটে টুইটে চলতে থাকে অভিনেত্রী ও গায়কের মধ্যে তর্ক বিতর্ক।

কনসার্টে অভিনেত্রীদের গান পরিবেশন করার বিষয় নিয়ে বাক বিতণ্ডার ইতি টানতে সোনাক্ষী শেষমেশ একটি বড় স্ট্যাটাস দিতে বাধ্য হন।

সেখানে সোনাক্ষী বলেন, তিনি এর আগেও বহুবার বলেছেন যে বিবারের কনসার্টে তাঁর গান গাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত নয়। তবুও এটা নিয়ে এত জল ঘোলা হচ্ছে সেটা তাঁর একেবারেই ভালো লাগছে না।

লিখিত সেই বক্তব্যে সোনাক্ষী বলেন, ‘প্রথমত আমি জাস্টিন বিবারের কনসার্টে গান গাইছি না। যদিও আমি এর আগে অনেকবার বলেছি যে, আমি এই কনসার্টে পরিবেশন করছি না। কিন্তু অনেক পত্রিকা ও ওয়েব পোর্টাল এসব খবর প্রকাশ করে যাচ্ছে। দ্বিতীয়ত, আমি একজন অভিনেত্রী যিনি গান ভালোবাসেন ও গাইতে ভালোবাসেন। আর এটা নিয়ে যদি কারও কোনো আপত্তি থাকে তাহলে তাঁরা নিজেদের ভালোবেসে কনসার্টে যেতে পারেন।’

সংবাদ সংস্থা আইএএনএসকে সংগীতশিল্পী কৈলাস খের বলেছিলেন, ‘আমি কোথাও পড়েছি যে কানাডিয়ান শিল্পী জাস্টিন বিবার ভারতে আসছেন এবং সোনাক্ষীও সেখানে গাইবেন। সংবাদটি আকর্ষণীয়, কিন্তু এটি মিথ্যা। আন্তর্জাতিকভাবে এটি ভালো বার্তা দেয় না। তাঁরা (আন্তর্জাতিক শিল্পীরা) মনে করছেন, সোনাক্ষী ভারতের একজন বড় মাপের শিল্পী। তাই তিনি কানাডা থেকে কনসার্টের প্রস্তাব পেয়েছেন এবং হয়তো সোনাক্ষী তখন হেসে বলেছেন, আমি তো সংগীতশিল্পী নই, আমি একজন অভিনয়শিল্পী।’

কৈলাস খেরের মতো একই মনোভাব প্রকাশ করেছেন ভারতের অন্য শিল্পীরাও। আরমান মালিক নিজের টুইট অ্যাকাউন্টে বলেন, ‘আমি কৈলাস খের স্যারের সঙ্গে একমত। অভিনয়শিল্পীরা অভিনয়শিল্পীই হয় এবং সংগীতশিল্পীরা সংগীতশিল্পীই। মঞ্চ এবং মাইকটা আমাদের ওপর ছেড়ে দেওয়া উচিত। এটা আমাদের খেলার জায়গা, তোমার নয়।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য