দেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর প্রতিনিধিঃ অসুস্থ্য বাবার চিকিৎসার টাকা যোগাড় করতে বাবাকে ভ্যানে বসিয়ে নিজে ভ্যান চালিয়ে পথে পথে টাকা সংগ্রহ করছে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার  বেলতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী আফরুজা আকতার শিমু।

আফরুজা জানায়,তার বাবা সিরাজুল ইসলাম দীর্ঘ এক বছর ধরে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে ডান হাত পা পড়ে গেছে। ভ্যানচালক বাবার চিকিৎসার টাকা সংগ্রহ ও সংসারের খরচ যোগাতে সংসারের হাল ধরতে হয়েছে তাকে ও তার মাকে। সপ্তাহে পালাক্রমে মা ও সে (আফরুজা) বাবাকে ভ্যানে বসিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ভিক্ষাবৃত্তি করছে।

তাদের পরিবারে ২ বোন এক ভাই বাবা মাসহ মোট ৫ জন সদস্য। এরমধ্যে বড়ভাই বিয়ে করে আলাদা হয়েছে। বড় বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। এখন পবিারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি বাবাও এক বছর ধরে অসুস্থ্য।

আফরুজার বাবা সিরাজুল কান্না জড়িত কন্ঠে জানান, সংসারে আয় করার মতো কেউ নেই তাই সংসারের খরচ ও চিকিৎসার টাকা যোগাড় করতে বাধ্য হয়ে স্কুলের ক্লাশ নষ্ট করে শিশু কন্যা আফরুজা ও তার মাকে দিয়ে ভ্যানে বসে ভিক্ষা করছি।

আব্দুলপুর ইউপি চেয়ারম্যান ময়েন উদ্দীন শাহ জানান, আগামী অর্থ বছরে প্রতিবন্ধী ভাতার তালিকায় সিরাজুলকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।  বেলতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক খালেদা রোকেয়া জানান, আফরুজা ছাত্রী হিসেবে মেধাবী কিন্তু বাবা অসুস্থ্য হওয়ার পর হতে সে নিয়মিত স্কুলে আসেনা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য