যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক শহরের একটি বাসায় লাগা আগুনে তিনটি শিশুসহ পাঁচজন পুড়ে মারা গেছে।

স্থানীয় সময় রোববার দুপুরে শহরের কুইন্স বিভাগে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন মেয়র বিল ডি ব্লাসিও।

নিজেদের ফেইসবুক পেইজে এক বিবৃতিতে নিউ ইয়র্ক দমকল বাহিনী জানিয়েছে, কুইন্স ভিলেজ আবাসিক এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় এক গাড়িচালক দেখতে পান, আগুন একটি বাড়িকে গ্রাস করে নিয়েছে। দুপুর প্রায় আড়াইটার (২টা ৩০ মিনিট) দিকে তিনি দমকল বিভাগে ফোন দিয়ে ঘটনার কথা জানান।

“চার মিনিটের মধ্যেই আমাদের কর্মীরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়, কিন্তু ততক্ষণে বাড়িটি সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে গেছে,” এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন নিউ ইয়র্ক দমকল বিভাগের কমিশনার ড্যানিয়েল নিগ্রো।

এরপরও আগুন আয়ত্তে আনতে দমকল কর্মীদের প্রায় তিন ঘন্টা সময় লাগে।

“ওই বাড়িতে থাকা পাঁচজনের কেউ বেঁচে নেই। এটি ভয়ানক, শোচনীয় একটি ক্ষতি,” বলেন তিনি।

নিহতদের মধ্যে সবচেয়ে ছোট শিশুটির বয়স দুই বছর বলে জানিয়েছে তিনি।

একই সংবাদ সম্মেলনে মেয়র ব্লাসিও জানিয়েছেন, মৃতদের মধ্যে তিনটি শিশু রয়েছে। তবে অপর দুই শিশুর বয়স ও তিন শিশুর কারো নাম প্রকাশ করেননি তিনি।

এক টুইটার পোস্টে ব্লাসিও বলেছেন, “কী হয়েছিল তার মূল কারণ খুঁজে বের করা এবং আর কোনো পরিবার যেন এ ধরনের পরিস্থিতির শিকার না হয় তা নিশ্চিত করাই এখন আমাদের দায়িত্ব।”

আগুন লাগার কারণ তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নিউ ইয়র্কে গত দুই বছরের মধ্যে আগুনে পুড়ে সর্বোচ্চ প্রাণহানীর ঘটনা এটি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য