গত বছরের সাড়া জাগানো চলচ্চিত্র ‘আয়নাবাজি’ সফলতার ধারাবাহিকতায় এবার নির্মাণ হচ্ছে ‘আয়নাবাজি অরিজিনাল সিরিজ’ নামে নতুন একটি টিভি সিরিজ। আজ (রোববার) রাজধানীতে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই টিভি সিরিজের ঘোষণা দেয়া হয়। চলচ্চিত্রের মূল বিষয়কে ঘিরেই গড়ে উঠছে টিভি সিরিয়ালের বিষয়বস্তু।

গল্পের মূল আবহ থাকছে একজন মানুষের জীবনের বিভিন্ন বিচিত্রময় রূপের সাবলীল উপস্থাপনা। এই বিষয়কে কেন্দ্র করে তৈরি হচ্ছে ‘আয়নাবাজি অরিজিনাল সিরিজ’। আন্তর্জাতিক ফিল্ম  ইন্ডাস্ট্রিতে এরকম প্রায়ই হতে দেখা গেলেও প্রথমবারের  মতো বাংলাদেশী কোনো চলচ্চিত্র থেকে টিভি সিরিজ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হলো।

এই সিরিজে ভিন্ন প্রেক্ষাপট, ঘটনা এবং চরিত্রের সঙ্গে সাতটি ভিন্ন ভিন্ন গল্প নিয়ে থাকছে সাতটি আলাদা পর্ব। যদিও প্রতিটি পর্বেই থাকছে ‘আয়নাবাজি’র আবহ এবং চিরচেনা সেই দৃষ্টিনন্দন সৌন্দর্য্য। গল্পের উপস্থাপনা, অভিনয়শৈলী এবং ভিন্ন ধারার পরিবেশনার কারণে প্রতিটি পর্বই ‘আয়নাবাজি’ চলচ্চিত্রকে প্রতিনিধিত্ব করবে বলে প্রত্যাশা করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

আগামী ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে টানা সাত দিন জিটিভি, আরটিভি এবং দীপ্ত টিভিতে  একইসঙ্গে একই সময়ে প্রদর্শিত হবে এই এক ঘন্টাব্যাপী সাতটি পূর্ণাঙ্গ পর্ব। দেশের শীর্ষস্থানীয় ও খ্যাতনামা সাতজন পরিচালকের পাশাপাশি ‘আয়নাবাজি’ চলচ্চিত্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সার্বিক ও সরাসরি তত্ত্বাবধানে হবে ধারাবাহিক এই সিরিজটি।

অমিতাভ রেজা চৌধুরী থাকছেন সিরিজটির ডিরেক্টরিয়াল কনসালটেন্ট হিসেবে। পাশাপাশি সৈয়দ গাউসুল আলম শাওন সিরিজটির ক্রিয়েটিভ কনসালটেন্ট। সিরিজটির যৌথ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টম ক্রিয়েশনস ও ক্যান্ডি প্রডাকশন। নতুন পরিচালকরা হচ্ছেন  কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়, আশফাক নিপূণ, সুমন আনোয়ার, গৌতম কৈরি, তানিম রহমান অংশু এবং রবিউল আলম রবি।

‘আয়নাবাজি অরিজিনাল সিরিজ’ এর প্রযোজক ও টপ অব মাইন্ডের সিইও জিয়াউদ্দিন আদিল এ প্রসেঙ্গ বলেন, বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে ‘আয়নাবাজি’ একটি মাইলফলক। যা দর্শকদের চলচ্চিত্র দেখার অভিজ্ঞতাকে সমৃদ্ধ করেছে। প্রশংসিত চলচ্চিত্রটি যারা তৈরি করেছে; সেই একই নির্মাতা গোষ্ঠীর তত্ত্বাবধানে তৈরি হচ্ছে ‘আয়নাবাজি অরিজিনাল সিরিজ’।

দর্শকদের ‘আয়নাবাজি’ দেখার সেই অভিজ্ঞতাকে একবার নয় সাতবার সাতটি ভিন্ন গল্পের মাধ্যমে ফিরিয়ে আনছি আমরা। অমিতাভ রেজা চৌধুরী বলেন, আমার কাছে ‘আয়নাবাজি’র সবচেয়ে বড় সফলতা হলো সিনেমা হল থেকে বের হওয়া মানুষগুলোর হাসিমুখ এবং আবারও আমরা হারিয়ে যাওয়া সিনেমা দর্শককে হলে আনতে পেরেছি।

এই প্রাপ্তিকে দেশব্যাপি আরো বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর কাছে ছড়িয়ে দিতে আমাদের এই উদ্যোগ। আমরা আবার ‘আয়নাবাজি’ নিয়ে আসছি নতুন গল্প এবং চরিত্র সঙ্গে নিয়ে। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে প্রযোজক ও নির্মাতারা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জিটিভি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর আমান আশরাফ ফায়েজ, আরটিভির সিইও সৈয়দ আশিক রহমান, দীপ্ত টিভির সিইও উরফী আহমদ, অভিনেত্রী উর্মিলা শ্রাবন্তী করসহ অনেকেই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য