নিজস্ব প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ আরো তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে রনজিৎ (৫০), রংপুর  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দেড়টায় মো শফিকুল ইসলাম (২০) ও   রোবাবার (২৩ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে উদয় (৩০) নামে ৩ জনের মৃত্যু হয়।

এর আগে ঘটনার দিন ১৯ এপ্রিল বুধবার বিকেলে অঞ্জনা দেবী নামে এক নারীসহ ওই দিন রাতে মোকছেদ আলী, বৃহস্পতিবার আরিফুল ইসলাম ও শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০ টায় রুস্তম আলীর মৃত্যু হয়। এ নিয়ে এ ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭ জনে দাড়িয়েছে। নিহতদের মধ্যে মোকছেদ আলী ও রুস্তম তারা আপন ভাই। তাদের অপর দুই ভাই দেলোয়ার হোসেন ও বাদল দগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রমেকের বার্ন ইউনিটের প্রধান ডা. মারুফুল ইসলাম মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, ১৯ এপ্রিল বুধবার বেলা সাড়ে ১২টায় দিনাজপুর সদর উপজেলার যমুনা অটোমেটিক রাইস মিলে কাজ করার সময় প্রচন্ড গরমে বয়লার বিস্ফোরিত হয়ে ২৮ শ্রমিক আহত হন। আহতদের দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে ১৭ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অঞ্জনা দেবী, মোকছেদ আলী, আরিফুল ইসলাম ও রুস্তম আলীর মৃত্যু হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য