মিশরের উত্তরাঞ্চলীয় সিনাই উপত্যকায় সেনাবাহিনীর হাতে নিরস্ত্র বন্দিদেরকে গুলি করে হত্যা করার এটি ভিডিও প্রকাশ পেয়েছে। ওই উপত্যকায় উগ্র তাকফিরি জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যাপকভিত্তিক অভিযান চালাচ্ছে দেশটির সেনাবাহিনী।

মিশরের সরকার বিরোধীদের পক্ষ থেকে পরিচালিত ‘মেকামিলিন টিভি’তে বৃহস্পতিবার  ভিডিও ফুটেজটি প্রচারিত হয়। এতে দেখা যায়, সেনা সদস্যরা হত্যাকাণ্ডের পর ঘটনাস্থলে এমন কিছু আলামত সাজিয়ে রাখছে যাতে মনে হয় সত্যি সত্যি সেখানে বন্দুকযুদ্ধ হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের পর সেনাসদস্যরা নিহত বন্দিদের লাশের পাশে অস্ত্র রেখে দিচ্ছে।

তবে সরকারপন্থি একটি নিউজ ওয়েবসাইট ২০১৬ সালের ওই ভিডিওকে ‘বানোয়াট’ বলে উল্লেখ করেছে।

মিশরের সেনাবাহিনী এখন পর্যন্ত এই ভিডিও ফুটেজের ব্যাপারে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি। তবে তারা দৃশ্যত গত বছর একই ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করে দাবি করেছিল, তারা এক ভারী বন্দুকযুদ্ধে একটি ‘বিপজ্জনক সন্ত্রাসী চক্র’কে ধ্বংস করেছে। তবে সেনাবাহিনী সে সময় গুলি করে বন্দিদের হত্যার দৃশ্য প্রচার করেনি বরং হত্যাকাণ্ড পরবর্তী দৃশ্যগুলো প্রচার করেছিল।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, তারা এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করে দেখেছে। সংস্থাটি এ ঘটনাকে ‘ঠাণ্ডা মাথার হত্যাকাণ্ড’ উল্লেখ করে মিশর সরকারকে অবিলম্বে এ ঘটনা তদন্ত করে দেখার আহ্বান জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য