রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন অভিযোগ করেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণ করার পর ওয়াশিংটন-মস্কো সম্পর্ক আগের চেয়ে আরো খারাপ হয়েছে।

তিনি বুধবার প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, দুদেশের মধ্যে বিশেষ করে সামরিক খাতে সহযোগিতার জন্য আস্থার জায়গাটি ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর আগের চেয়ে খারাপ হয়েছে।

সিরিয়ায় সাম্প্রতিক এক সন্দেহজনক রাসায়নিক হামলা এবং এর জের ধরে দেশটিতে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলাকে কেন্দ্র করে ওয়াশিংটন ও মস্কোর সম্পর্কে তীব্র উত্তেজনা চলছে। আমেরিকা সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশের রাসায়নিক হামলার জন্য বাশার আল-আসাদ সরকারকে দায়ী করছে। অন্যদিকে দামেস্কের মিত্র রাশিয়া এ অভিযোগ অস্বীকার করে রাসায়নিক বিস্ফোরণের জন্য উগ্র জঙ্গিদের দায়ী করছে।

ওই রাসায়নিক হামলা সম্পর্কে পুতিন বলেন, হয় সন্ত্রাসীদের রাসায়নিক অস্ত্রাগারে সিরিয়ার বিমান হামলার ফলে ওই বিস্ফোরণ ঘটেছে অথবা উগ্র জঙ্গিরা আসাদ সরকারকে দায়ী করার জন্য নিজেরাই এই হামলা চালিয়েছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট তার সাক্ষাৎকারে সিরিয়ার একটি বিমান ঘাঁটিতে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, ওই হামলা ছিল আন্তর্জাতিক আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। পুতিন বলেন, রাসায়নিক হামলায় কারা জড়িত ছিল তা বের করার জন্য বিস্তারিত তদন্ত প্রয়োজন। এর বাইরে অন্য কোনো উপায় নেই।  রাশিয়া শুরু থেকেই এই প্রস্তাব দিয়ে এসেছে বলে প্রেসিডেন্ট পুতিন উল্লেখ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য