বাড়ীর সীমানা প্রাচীর নিয়ে বিরোধে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ছোট ভাইয়ের আঘাতে বড় বোন মাসুদা বেগম নিহত হয়েছেন।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যান।

নিহত মাকছুদা বেগম ওরফে কাদবানু (৪৫) নবাবগঞ্জ উপজেলার গোলাপগঞ্জ ইউপির হরিপুর (পিরদহ) গ্রামের হুমায়ুন কবিরের স্ত্রী।
[ads1]
পুলিশ জানায়, বাড়ীর সীমানা প্রাচীর নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে গত মঙ্গলবার নিহত মাকছুদার ছোট ভাই একই গ্রামের মৃত কালু শেখের ছেলে ওবাইদুল হক বড় বোন মাকছুদা বেগমের বাকবিত-া হয়।

এসময় ছোট ভাইয়ের শাবলের আঘাতে বড় বোন আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং সেখান থেকে ওই দিনই রংপুর মেডিকেল  কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই মঙ্গলবার দিবাগত রাতে মারা যায়।

নবাবগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) হাকিম আজাদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় মাকছুদার স্বামী হুমায়ুন কবির বাদী হয়ে বুধবার হত্যা মামলা দায়ের করে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য