নীলফামারীতে ১৬ টি চোরাই গরু উদ্ধার করেছে পুলিশ। জেলার ডোমার উপজেলার পশ্চিম হরিনচড়া গ্রামের জনৈক মমিনুর রহমান ও তার অপর দুই ভাইয়ের বাড়ীতে গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত হতে গতকাল বুধবার দুপুর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে এ গরুগুলি উদ্ধার করেছে ডোমার থানা পুলিশ। তারা ওই এলাকার আমছার আলীর ছেলে। জানা যায়, স্থানীয় বসুনিয়া হাটে একটি গরু কিনে মমিনুর একই রঙের দুটি রশিদ কাটতে বলে ইজারাদারকে।

তিনি এতে রাজী না হলে একটি রশিদ নিয়ে ফেরে মমিনুর। পরবর্তীতে তার বাড়ীতে একটি রশিদে একই রঙের দুটি গরু দেখতে পায় এলাকাবাসী। এরপর থানা পুলিশে খবর দেয়া হলে তার বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে তার পাকা গোয়াল ঘর সহ তার অপর ভাইদের বাড়ী হতে বিভিন্ন বয়সী ১৬ টি গরু উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারকৃত গরুগুলি থানায় হেফাজতে রয়েছে।

এ গরু উদ্ধারের খবর ছড়িয়ে পড়লে পাশ্ববর্তী সদর উপজেলার লক্ষীচাপ, জলঢাকা উপজেলার খেরকাটি, ধর্মপাল সহ বিভিন্ন এলাকার লোকজন এসে বিভিন্ন সময়ে তাদের চুরি যাওয়া গরু বলে সনাক্ত করে। পুলিশি অভিযানের সময় একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় গরু চোর মমিনরি সহ তার অপর দুই ভাই ও তাদের বাড়ীর অপরাপর সদস্যরা পালিয় যায়।

এলাকাবাসী জানায়, হঠাৎ করে গত তিন বছর ধরে মমিনুর ও তার ভাইদের আর্থিক উথ¦ান হতে থাকে। তাদের এ গরু চুরি কর্ম ও চোরাই মালামাল হেফাজতের পিছনে একটি প্রভাবশালী মহল রয়েছে বলে তাদের দাবী। সরকারের যথাযথ কতৃপক্ষের কাছে এ চক্রের প্রধান হোতা সহ প্রকৃত অপরাধীদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনার দাবী জানাচ্ছে এলাকাবাসীর। এ ব্যাপার ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোকছেদ আলী গরু উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য