নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে এক ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ীর দোকানে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়েছে ওই ব্যাবসায়ীর স্ত্রী মোর্শেদা বেগম (২৬)।

তিনি বর্তমানে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ হামলা ও ভাংচুরের ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দুপুরে উপজেলা সদরের পশ্চিম চিকনমাটি পানাতিপাড়া গ্রামের আরডিআরএস মোড় নামক এলাকায়।

এলাকাবাসী জানায়, ওই এলাকার আজিজুল ইসলামের ছেলে জিয়াউর রহমান ২০০৮ সালে ৮ শতাংশ জমি কিনে বাড়ী নির্মান করে বসবাস ও বাড়ী সংলগ্ন একটি ক্ষুদ্র দোকান করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন।

দীর্ঘদিন পর বুধবার দুপুরে প্রতিবেশী আব্দুল মজিদের ছেলে দুলাল, তার স্ত্রী রাব্বিনা বেগম দলবল নিয়ে ২০০৯ সালে ওই জমি কিনে নিয়েছে এমন মালিকানা দাবী করে জিয়াউর রহমানের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এ সময় দোকান বাচাতে গিয়ে আহত হয়েছে জিয়াউর রহমানের স্ত্রী মোর্শেদা বেগম। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেয়।

ডোমার পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আলম দোকানে হামলা ও ভাংচুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য