পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের পার্বতীপুরে দিনেদুপুরে এক স্কুল ছাত্রীকে জোর করে তুলে নেয়ার চেষ্টা করার সময় দুই যুবককে ধরে পুলিশের হাতে সোর্পদ করেছে গ্রামবাসী। আজ মঙ্গলবার (২৮মার্চ) বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার মন্মথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, মন্মথপুর গ্রামের মাঝাপাড়ার ট্রাক্টর শ্রমিক রবিউল ইসলাম (১৯) ও শাকিল আহাম্মেদ (১৮) এর নেতৃত্বে একদল বখাটে যুবক লাঠি-সোটা নিয়ে বেলা ১টার দিকে ওই গ্রামের এম আর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এলাকায় অবস্থান নেয়। বেলা সাড়ে ৩টার দিকে স্কুল ছুটি হলে ৭ম শ্রেণির ওই ছাত্রী বাড়ী যাওয়ার সময় বখাটে যুবকেরা তার পথরোধ করে। এসময় তারা তাকে জোরপূর্বক তুলে নেয়ার চেষ্টা করে।

ছাত্রীটির চিৎকারে স্কুলের শিক্ষক-ছাত্রীরা এগিয়ে এলে বখাটে যুবকেরা মেয়েটিকে ছেড়ে দিয়ে পালাতে থাকে। খবর পেয়ে মেয়ের বাবা ও গ্রামের লোকজন বখাটেদের ধাওয়া করে রবিউল ও তার সঙ্গী শাকিলকে আটক করতে সক্ষম হয়। পরে তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক নুর আমিন ঘটনার শিকার ওই ছাত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, বেশ কিছুদিন ধরে বখাটে যুবক রবিউল তার সঙ্গীদের নিয়ে স্কুলের আশপাশে ঘোরাফেরা করতো। সে মেয়েটির সঙ্গে একাধিকবার প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তোলার প্রস্তাব দিয়েও সফল না হওয়ায় তাকে জোর করে তুলে নেয়ার চেষ্টা চালায়।

পার্বতীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহাম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য