কিছুদিন ধরে স্কুবা ডাইভিং শিখছিলেন অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া। তবে কোনো ছবির জন্য নয়। শখ থেকেই তাঁর শেখার শুরু। সাধারণ শখ থেকে এটিকে এখন বেশ গুরুত্বের সঙ্গে নিতে শুরু করেছেন এই নায়িকা। কারণ, এখন তিনি একজন সনদপ্রাপ্ত স্কুবা ডাইভার।

ইন্দোনেশিয়ার বালিতে একবার স্কুবা ডাইভিং করতে গিয়েই এর মজা পেয়ে যান পরিণীতি। এর পর থেকে আনিশ আদিনওয়ালার কাছে স্কুবা ডাইভিংয়ের প্রশিক্ষণ নিতে শুরু করেন। আনিশ ১৫ বছর ধরে এই কাজের সঙ্গে আছেন। বলিউড সিনেমার পানির নিচের অনেক দৃশ্যে এই ব্যক্তির কৃতিত্ব আছে। আর পরিণীতিও তাঁর এই সনদ পাওয়ার সব কৃতিত্ব দিতে চান প্রশিক্ষককে।

পরিণীতি এখন সাগরে ১২০ ফুট পর্যন্ত স্কুভা ডাইভিং করতে পারেন। তবে সেটি শুধু দিনের বেলায়। রাতের বেলায় স্কুবা ডাইভিংয়ের সনদ পাওয়ার জন্য এখন তিনি উচ্চতর পর্যায়ের একটি কোর্স শুরু করছেন বলে জানান। বলিউডের আরেক অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুরেরও স্কুবা ডাইভিংয়ে দারুণ ঝোঁক।

তিনি তো এই কাজে এতটাই দক্ষ যে বাগি সিনেমার শুটিংয়ের সময় সহশিল্পী টাইগার শ্রফকেও এর প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন।

পরিণীতি চোপড়াকে সামনে দেখা যাবে রোহিত শেঠির ছবি ‘গোলমাল’ সিরিজের চতুর্থ কিস্তি গোলমাল অ্যাগেইন-এ। হিন্দুস্তান টাইমস

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য