দিনাজপুর সংবাদাতাঃ প্রাক-প্রাথমিক পাঠ্যপুস্তক রচনার ক্ষেত্রে সাঁওতালী(রোমান) বর্ণমালা ব্যবহারের দাবীতে আদিবাসীদের কয়েকটি সংগঠন আজ দিনাজপুওে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করেছে।

গতকাল সকাল সাড়ে ১১টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সন্মুখ সড়কে নর্দান আদিবাসী ছাত্র ঐক্যজোট বাংলাদেশসহ আদিবাসদের আরো ৩টি সংগঠন মানববন্ধনের আয়োজন করে। আদিবাসী ছাত্র নেতা আলবিনুশ টুডু’র সভাপতিত্বে ঘন্টাব্যাপী চলা এই মানবন্ধনে বক্তারা বলেন, জাতি,ধর্ম,বর্ণ,গোত্র নির্েিবশেষে সকলের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছেন তাই আমাদের দাবী সরকার আদিবাসী জনগোষ্ঠির মাতৃভাষার প্রতি সন্মান দেখিয়ে কমলমতি শিশু-কিশোর শিক্ষার্থীদের জন্যে প্রাক-প্রাথমিক পাঠ্যপুস্তকে সাঁওতাল(রোমান) বর্ণমালা ব্যবহারের ব্যবস্থা করে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করবেন।

তারা বলেন, ১৯৫২ সালে বাঙ্গালীরা নিজের মাতৃভাষার জন্যে আন্দোলন করেছিলেন এবং সফল হয়েছে আমরা আমাদের মাতৃভাষার জন্যে আন্দোলন করছি। সাঁওতাল জনগোষ্টির দীর্ঘদিনের প্রানের দাবী পাঠ্যপুস্তকে সাঁওতাল ভাষার ব্যবহার উপেক্ষা করা যাবেনা। তারা বলেন,আদিবাসী শিশুরা যাতে নিজেদের মাতৃভাষা শিখতে ও পড়তে পারে সে জন্যে আদিবাসী শিক্ষক ও পাঠ্যপুস্তকের ব্যবস্থা করতে হবে। আদিবাসী শিশুদের শিক্ষালাভের সুযোগ সৃষ্টির লক্ষে বর্তমান সরকারের  জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ প্রবর্তনের মাধ্যমে বাংলাদেশে বসবাসরত আদিবাসী শিশুসহ সকল ক্ষুদ্র জাতি সত্বার সংস্কৃতি ও ভাষার বিকাশ ঘটানো সরকারের এমন উদ্দ্যোগকে আমরা সহযোগীতা করতে চাই।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নর্দান ইনডিজিনাস স্টুডেন্টস ইউনিয়ন সভাপতি জন মুরমু,সান্তাল স্টুডেন্ট ইউনিয়ন(সামু)’র সভাপতি মিলন সরেন,সদস্য পল্লব কিস্কু,রিপন হাসদা,আদিবাসী পত্রিকা তাবিখা সংবাদ এর সম্পাদক স্টেফান সরেন,সাঁওতাল লেখক ফোরাম বাংলাদেশের সাংগঠনিক সংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ হেমরম,আদিবাসী নেতা মিঃ রবীন্দ্রনাথ হেমব্রম,আদিবাসী মুক্তি মোর্চাও সভাপতি মিঃ যোগেন্দ্রনাথ সরেন ও সাধারন সম্পাদক জাকারিয়াস ডুমরি,সান্তাল গবেষক লগেন কিস্কু,উত্তরবঙ্গ আদিবাসী ফোরাম সভাপতি মিঃ হিংগু মুরমু,সাঁতাল সমন্বয় পরিষদেও সভাপতি মিঃ কর্নেলিয়াস ও আউলিয়পুর প্রাথমিক মডেল বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যোসেফ মুরমু প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য