ইসলামিক স্টেটের (আইএস) নিয়ন্ত্রণ থেকে উত্তর সিরিয়ার আল-বাব শহরকে নিজেদের কব্জায় নেওয়ার পথে রয়েছে তুর্কি সেনা নেতৃত্বাধীন সিরীয় বিদ্রোহীরা। তুরস্ক সরকার ও সিরীয় বিদ্রোহীদের কয়েকটি সূত্র গত বুধবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এর আগে সিরীয় সরকারি বাহিনী ও তাদের মিত্ররা আল-বাবের উপর দিয়ে তুর্কি সীমান্ত হয়ে আইএস নিয়ন্ত্রিত রাক্কা ও দেইর আল-জোর প্রদেশে যাওয়ার প্রধান সড়কটির দখল নেয়। মূলত এর মাধ্যমে আইএস-র রসদ সরবরাহে বড় ধরনের বাধা সৃষ্টি করা সম্ভব হয়েছিল।

ওদিকে, তুরস্ক সমর্থিত বিদ্রোহীরা আলেপ্পো প্রদেশের উত্তর দিক দিয়ে আইএস-এর উপর আক্রমণ চালায়। সিরীয় সেনাবাহিনী আল-বাবের দিকে অগ্রসর হওয়ায় এখন তুর্কি বাহিনী ও তাদের মিত্র ‘ফ্রি সিরিয়ান আর্মি’র সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বাধার ঝুঁকি বাড়ছে। সিরিয়ার বুহমুখী গৃহযুদ্ধে সবচেয়ে জটিল লড়াইক্ষেত্রগুলোর একটি দেশটির উত্তরাঞ্চল।

সেখানে বর্তমানে আইএসকে সিরীয় সেনাবাহিনী, তুর্কি ও মিত্র বাহিনী এবং যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সিরীয় বিদ্রোহীদের সঙ্গে লড়াই করতে হচ্ছে। তিন পক্ষই আইএসকে হটিয়ে আলেপ্পোর দখল নিতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

এদিকে তুরস্ক জানিয়েছে, সিরীয় বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষ এড়াতে আন্তর্জাতিক সমঝোতার একটি ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে। তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অল্প সময়ের মধ্যে আল-বাবকে নিজেদের দখলে নিতে হবে।

গত কয়েকদিনে আমাদের বিশেষ বাহিনী ও ফ্রি সিরিয়ান আর্মি (বিদ্রোহী) বেশ অগ্রগতি দেখিয়েছে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই রাক্কাকে সম্পূর্ণভাবে মুক্ত করার আশার কথা জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মিত্র বাহিনীর নেতৃত্বে থাকা মার্কিন সেনাবাহিনী।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য