আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধায় গত দু’দিন ধরে প্রচন্ড শৈত্য প্রবাহের কারণে তীব্র ঠান্ডায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার সারারাত ঘন কুয়াশা ঢাকা ছিল চারদিক।

এছাড়া বৃষ্টির মত শিশিরও পড়েছে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১টা পর্যন্ত সূর্যের আলো দেখা যায়নি। হিমেল হাওয়া ও কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে থাকে সর্বত্র। ঘন কুয়াশার কারণে সকালে অনেক যানবাহনকে হেড লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করতে হয়।

এছাড়া সকাল ১০টা পর্যন্ত ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদী পথে গাইবান্ধার সাঘাটা, ফুলছড়ি, সুন্দরগঞ্জ ও সদর উপজেলার চরাঞ্চলের গ্রামগুলোর সাথে জেলা ও উপজেলা সদরের নৌ চলাচল বন্ধ থাকে।

এরফলে চরাঞ্চলের মানুষদের চরম বিপাকে পড়তে হয়। জেলা ও উপজেলা হাসপাতালগুলোতে শীত জনিত সর্দি কাশি, হাপানি, পীটের পীড়া, কোল্ড ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তীব্র শীতের কারণে শিশু ও বৃদ্ধরাই আক্রান্ত বেশি হচ্ছে। এদিকে ঠান্ডার কারণে কৃষকরা জমি চাষ বা ধানের চারা রোপন করতে না পেরে চরম বিপাকে পড়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য