ভারতের উত্তর প্রদেশে দ্রুতগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে একটি স্কুল বাসের সংঘর্ষে ১৫ শিশু নিহত ও অপর ২৫ জন গুরুতর আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে উত্তর প্রদেশের এটাহ জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

দুর্ঘটনার শিকার বাসটিতে ৬০ জনেরও বেশি শিক্ষার্থী ছিল। তাদের সবার বয়স সাত থেকে ১০ বছরের মধ্যে বলে জানা গেছে।

এক ট্যুইটার বার্তায় এ ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

দুর্ঘটনায় পড়া বাসটি থেকে সব শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। আহতদের এটাহ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে গুরুতর আহত ১৬ শিশুকে আলিগড়ে একটি বিশেষায়িত সরকারি হাসপাতালে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা দলজিৎ চৌধুরি বলেন, “অনেক শিশু গুরুতর আহত হয়েছে। ঘটনার জন্য কেউ দায়ী হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব আমরা।”

পুলিশ জানিয়েছে, অতিরিক্ত ঠাণ্ডা পড়ায় শুক্রবার পর্যন্ত সব স্কুল বন্ধ রাখার নিদের্শ দিয়েছিল সরকার, তা সত্বেও স্কুলটি কেন খোলা ছিল তা তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংও দুর্ঘটনায় শিশু নিহতের ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব শিশু নিহতের ঘ্টনায় সমবেদনা প্রকাশ করে আহতদের চিকিৎসায় সম্ভাব্য সবকিছু করার নির্দেশ দিয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য