আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে এক অসহায় দরিদ্র পরিবারের পাশে পলাশবাড়ীর ইউএনও এবং উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ। অসহায় দরিদ্র পরিবারটির কর্তা জয়নাল আবেদীন তার স্ত্রী সালমা বেগম তিন সন্তানসহ তার বৃদ্ধা শাশুড়ী মা ছুরুতন বেওয়াকে (৮২) নিয়ে উপজেলা সদরের নুনিয়াগাড়ী গ্রামে (পলাশবাড়ী মহিলা ডিগ্রী কলেজ সংলগ্ন) বাড়ীতে বসবাস করে আসছেন।

অবিশ্বাস্য হলেও সত্য তাদের পরিবার দীর্ঘদিন যাবৎ পায়ে চলা রাস্তার অভাবে ওয়াল টপকে মই দিয়ে বাড়ীতে যাতায়াত করতেন। তাদের এই দীর্ঘদিনের কষ্টের কথা জানাতে সালমা বেগম তার বৃদ্ধা মাকে  নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে দেখা করে সহায়তা চান। বৃদ্ধার কোন পুত্র সন্তান না থাকার কারণে সে বড় মেয়ের বাড়ীতে থাকেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাত ৮টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ তোফাজ্জল হোসেন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে সরেজমিন বৃদ্ধার বাড়ী পরিদর্শনে যান।

এসময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহীনুর আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবু বকর প্রধান, সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ শামিকুল ইসলাম সরকার লিপন, সদর ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ইসলাম, আওয়ামীলীগ সদর ইউপি সভাপতি আব্দুল মতিন সরকার, সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক মকবুল ছাড়াও অন্যান্য নেতৃবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জীর্ণ-শীর্ণ অতশীপর বৃদ্ধা ছুরুতন বেওয়ার গায়ে কম্বল জড়িয়ে দিয়ে তার হাতে মিষ্টি, ফলমুল ও নগদ টাকা তুলে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। সেই সাথে তার বয়স্ক ভাতা দেয়ার ব্যবস্থা করে দিবেন বলে জানান। পরে তার বাড়ীর পাশের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন মাহাবুব প্রধানের বাসার পাশ দিয়ে অসহায় দরিদ্র পরিবারটির যাতায়াতের রাস্তার ব্যবস্থা করে দেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য