ওয়েব ডেক্সঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে উপজেলাতে খুড়া রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। গত দুই মাস উপজেলা গুলোতে  প্রতিটি গ্রামে ঘুড়ে দেখা গেছে খুড়া রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলেও প্রতিশেধোক মূলক কোন ব্যবস্থা নাই। ফলে কোন না কোন গ্রামে প্রতিনিয়ত খুড়া রোগে গরু, বাছুর মারা যাচ্ছে।

গরু বাছুর মারা যাওয়ার কারনে কৃষকরা অর্থনৈতিকভাবে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। দুই সপ্তাহ পূর্বে উপজেলার কশিগাড়ী গ্রামের শাহার উদ্দিনের পুত্র মোঃ আমিনুল ইসলামের ১৩ দিন বয়সের একটি ফ্রিজিয়ান জাতের একটি বাছুর ও একটি দেশি জাতের বাছুর খুড়া রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়।

অপরদিকে মরিচা গ্রামের বাবু মিয়ার একটি বাছুর খুড়া রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। এছাড়া কশিগাড়ী গ্রামের আবুল কালামের ৪টি গরু খুড়া রোগে আক্রান্ত হয়েছে।

ভুক্তভোগি আমিনুল ইসলাম বলছেন, প্রাণি সম্পদ অফিসের ডাক্তাররা প্রতিটি গ্রামে ঘুড়ে ফিড়ে খোজ খবর নিয়ে গরু বাছুরের বিভিন্ন রোগের প্রতিশেধকমূলক ভ্যাকসিন দিতে তাহলে সহজে খুড়া রোগে গরু মারা যেত না। কিন্তু তারা খোজ খবর না নিয়ে প্রতিশেধকমূলক ভ্যাকসিন গরু বাছুেরর বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার আগেই প্রতিশেধক ব্যবস্থা নিলেই মারা যেত না। এলাকাবাসী প্রতিশেধক ব্যবস্থা নিতে উদ্ধতন কর্মকতার সুদৃষ্টি কামনা করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য