ইংরেজি নববর্ষে ভারতে সম্ভাব্য সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় নিজ পর্যটকদের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করল ইহুদিবাদী ইসরাইল।

ইসরাইলের সন্ত্রাসবিরোধী অধিদফতর থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আমরা ভারতে যাওয়া ইসরাইলি পর্যটকদের উদ্দেশ্যে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে বলতে চাই তারা ভারতে বিশেষকরে ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিম এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার শিকার হতে পারে।’ ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ওই বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘নতুন বছর উপলক্ষে সমুদ্র সৈকত এবং ক্লাবে অনুষ্ঠেয় পার্টিকে বিশেষভাবে টার্গেট করা হতে পারে কারণ এসব স্থানে প্রচুর সংখ্যক বিদেশি পর্যটক উপস্থিত থাকেন। ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিম এলাকা যেমন গোয়া, পুণে, মুম্বাই এবং কোচিতে সবচেয়ে বেশি বিপদের ঝুঁকি রয়েছে কারণ এসব স্থান পর্যটকদের কাছে বেশি জনপ্রিয়।’

দিল্লির ইসরাইলি দূতাবাসের মুখপাত্রও ওই হুঁশিয়ারিকে নিশ্চিত করা হয়েছে। ইসরাইলি লোকেদের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে তারা যেন তাদের পরিজনদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখে।
ইসরাইলি নাগরিকদের উদ্দেশ্যে আচমকা ওই হুঁশিয়ারির কারণ সম্পর্কে অবশ্য অধিদফতর থেকে কিছু স্পষ্ট করা হয়নি।

ইসরাইলি নাগরিকদের কাছে ভারত একটি জনপ্রিয় পর্যটন গন্তব্যস্থল। প্রত্যেক বছর হাজার হাজার পর্যটক সেদেশ থেকে ভারতে ভিড় জমায়। এক পরিসংখ্যানে প্রকাশ, প্রত্যেক বছর কমপক্ষে ২০ হাজার ইসরাইলি নাগরিক ভারত ভ্রমণ করে থাকেন।

২০১২ সালে নয়াদিল্লিতে ইসরাইলি দূতাবাসের কাছে এক গাড়ি বিস্ফোরণের ঘটনায় ইসরাইলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রতিনিধির স্ত্রী আহত হয়েছিলেন। ভারত এবং ইসরাইলের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সামরিক সম্পর্ক রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য