নাটক কিংবা চলচ্চিত্রের লোকেশনের খোঁজে সাধারণত পরিচালক এবং তার সহকারীরাই গিয়ে থাকেন। সঙ্গে নায়ক কিংবা নায়িকা যান না। কিন্তু সুমন আনোয়ার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্রের ক্ষেত্রে ঘটেছে ব্যতিক্রম ঘটনা।

এ পরিচারকের প্রথম চলচ্চিত্র ‘কয়লা’র শুটিংয়ের আগে লোকেশনের খোঁজে তার সঙ্গী হয়েছেন তারই চলচ্চিত্রের নায়িকা মৌসুমী হামিদ। বেশ কয়েকমাস আগে ঘোষণা হয়েছিল, মৌসুমী হামিদ সুমন আনোয়ারের প্রথম চলচ্চিত্র ‘কয়লা’য় অভিনয় করতে যাচ্ছেন।

ঘোষণার কিছুদিনের মধ্যে চলচ্চিত্রটির শুটিং শুরু হওয়ার কথা থাকলেও অর্থনৈতিক সমস্যার কারণে নির্ধারিত সময়ে তা হয়নি। কিন্তু এবার সবকিছু ঠিকঠাক। আসছে নতুন বছরের জুন মাসে পুরোদমে চলচ্চিত্রটির শুটিং শুরু হবে। তবে তার আগে লোকেশনে ঘুরে আসার পরিকল্পনা করে পুরো ‘কয়লা’ পরিবার।

গত সোমবার রাতে লোকেশনের খোঁজে পরিচালক সুমন আনোয়ার গিয়েছেন কুয়াকাটায়। তার সঙ্গে গিয়েছেন ছবির নায়িকা মৌসুমী হামিদও। ‘কয়লা’ চলচ্চিত্রে চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র ‘ময়না’র ভূমিকায় অভিনয় করবেন তিনি। চলচ্চিত্রে ময়না যেখানে বসবাস করবেন সে স্থানটি নিজ চোখে আগেই দেখার জন্য গিয়েছেন মৌসুমী।

তিনি বলেন, ‘ময়না’ আমার কাছে এখন স্বপ্নের একটি চরিত্র। চলচ্চিত্রটির শুটিং শুরুর পূর্ব পর্যন্ত আমি ময়নার মাঝেই ডুবে থাকতে চাই। যে কারণে নিজের মধ্যে ময়নাকে ধারণ করার জন্য নিজে লোকেশনে এসেছি।

তাছাড়া আমার মনে হয় যেখানে শুটিং করবো সেখানে যদি আগেই একটু ঘুরে আসা যায় তাহলে শুটিংয়ের সময় খুব সহজে সে জায়গায় নিজেকে মানিয়ে নেয়া যায়। ‘কয়লা’ চলচ্চিত্রটি নিয়ে আমি খুব আশাবাদী। উল্লেখ্য, ‘কয়লা’ চলচ্চিত্রের কাহিনী, সংলাপ, চিত্রনাট্য করেছেন পরিচালক নিজেই।

এতে মৌসুমী হামিদের সঙ্গে অভিনয় করবেন রওনক হাসান। কুয়াকাটার লোকেশন দেখা শেষে ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে মৌসুমী হামিদের। মৌসুমী হামিদ অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রগুলো হচ্ছে সাফিউদ্দিন সাফির ‘ব্ল্যাক মানি’, অনন্য মামুনের ‘ব্ল্যাক মেইল’, সাফিউদ্দিন সাফির ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি টু’ এবং আবু শাহেদ ইমনের ‘জালালের গল্প’।

এদিকে মৌসুমী হামিদ ইমরাউল রাফাতের নির্দেশনায় নতুন ধারাবাহিক নাটক ‘সিনেমাটিক’-এর কাজ শুরু করেছেন। ভিন্ন ধরনের গল্প নিয়ে নির্মাণাধীন এই ধারাবাহিকের প্রধান একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য