Fulbarimapsসৈয়দ শিমুল, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ চতুর্থ দফায় রোববার দিনাজপুর জেলার ফুলবাড় উপজেলা নির্বাচনে হেরে গেলেন প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী ও দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড.মোস্তাফিজুর রহমান ফিজারের ছোট ভাই  মুশফিকুর রহমান বাবুল। ১৯ দলীয় প্রার্থী  উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ খুরশিদ আলম মতি ৪৬ হাজার ৪৭৮ ভোট পেয়ে বে সরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল পেয়েছেন ৩৪ হাজার ৪১২ ভোট।

দুটি ভাইস চেয়ারম্যান পদের একটিতে জামায়াত ও একটিতে বিএনপি জয় লাভ করেছে। এক কথায মন্ত্রীর এলাকায় আওয়ামী লীগের ভরা ডুবি হয়েছে। দলীয় মনোনয়ন নিয়ে দলের মধ্যে চাপা ক্ষোভ আর কয়লা খনি ইস্যুই হারার কারণ বলে প্রাথমীক ভাবে জানা গেছে।

জানা যায়,ফুলবাড়ী উপজেলায় পরীক্ষিত ,ত্যাগী ও জনপ্রিয় নেতাদেরকে বঞ্চিত করে প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী এ্যাড.মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার তার আপন ছোট ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল কে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা দেন। এ নিয়ে দলের মধ্যে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। অনেকে এ কারণে নির্বাচনী মাঠে প্রচারণায় নামেননি। অপরদিকে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান বামমোর্চার নেতা আমিনুল ইসলাম বাবলু কে মনোনয়ন না দেয়ায় কয়লা খনি বিরোধী নেতারা তার বিপক্ষে অবস্থান নেয়। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে রয়েছে অনেক অনিয়মের অভিযোগ।

অপরদিকে  দিকে এই উপজেলায় ১৯ দল একক প্রার্থী দিয়ে মাঠে নেমেছিল সবাই। এছাড়াও বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৯ দলের নেতা কর্মীরা তাদের প্রচারণায় খনি ইস্যুকে সামনে নিয়ে আসে। তারা প্রচারণা চালায় মুশফিকুর রহমান বাবুল বিজয়ী হলে খনি ইস্যুতে তার ভাই প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী এ্যাড.মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এক হয়ে এশিয়া এনার্জির পক্ষে কাজ করবে। কারণ বরাবরই মন্ত্রী তার নির্বাচনী এলাকা ফুলবাড়ীতে খনির পক্ষে অবস্থান নিয়ে কথা বলে থাকেন। তিনি দিনাজপুরে বিবিসি সংলাপেও খনির পক্ষে কথা বলেন। এই ইস্যু তুলে ধরে সফলতাও পেয়ে গেল বিএনপি।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৯দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী জামায়াতে ইসলাম ফুলবাড়ী শাখার সেক্রেটারী মঞ্জুরুল কাদের বাবু  ৩৯ হাজার ৮৬৪ ভোট পেয়ে বে-সরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জাকারিয়া হোসেন জাকির ৩০ হাজার ৪৯৭ ভোট পেয়েছেন।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা বিএনপি’র হাসিনা পারভীন (ফুটবল) ৪৯ হাজার ৫০৮ ভোট পেয়ে বে-সরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামীলীগ প্রার্থী সামছুন্নাহার (কলস) ২১১১৬ ভোট পেয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য