ওয়েব ডেক্সঃ দিনাজপুরের সাদিপুর গোদাগাড়ী থেকে শাহিন হোসেন নামে একজনকে আপহরণ করে জেলার বিরামপুর ভাইগড় সীমান্তের সাগড়দিঘি পাড়ে ভয় দেখিয়ে টাকা দাবীর সময় ৪ যুবককে আটক করেছে এলাকাবাসি। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

অপহৃত শাহিন হোসেন দিনাজপুর সদরের সাদিপুর গোদাগাড়ি এলাকার মতিবুর রহমানের ছেলে এবং  পুগালি অটো রাইসমিলের একজন কর্মচারী।

আটককৃতরা হলো, বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের শরিফ উদ্দীনের ছেলে সাখাওয়াত(৩০), দিনাজপুর পাগলামোড় এলাকার মজিবর রহমানের ছেলে সুমন(২৭), একই এলাকার মৃত আলাউদ্দীনের ছেলে ফারুক হোসেন এবং বিরল উপজেলার ফারাক্কাবাদ এলাকার শুকদেবপুর গ্রামের বিজয় দাসের ছেলে মহাদেব দাস (৩৫)।

বিরামপুরের জোতবানী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক অপহৃতের কথা উদ্ধৃত করে বলেন, শনিবার সন্ধায় দিনাজপুরের পুলহাট এলাকার হতে মাইক্রোতে করে চার যুবক অপহরণ করে নিয়ে আসে। পরে উক্ত সাগর দিঘির পাড়ে এসে মোবাইল ফোনে পরিবারের কাছে পঞ্চাশ হাজার টাকা দাবী করতে বলে।

কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তারা ধারালো অস্ত্রের মাধ্যমে হত্যার চেষ্ঠা করলে পানিতে লাফ দিয়ে চিৎকার দেয় সে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাচাঁও বাঁচাও বলে চিৎকার শুনে সাগর দিঘির নৈশ প্রহরী (মৎস্য পাহারাদার) দৌলত হোসেনসহ  এলাকাবাসীরসহযোগিতায় তাদের আটক করা হয়। পরে খবর পেয়ে স্থানীয় বিজিবি এবং পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।

বিরামপুর থানার ওসি মকলেছুর রহমান আটকের ঘটনার সতত্যা স্বীকার করে বলেন, আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ফেন্সিডিল ব্যবসায়ের লেন-দেন নিয়ে বিরোধে বকেয়া টাকা আদায়ে ভুল করে অন্য একজনকে তুলে আনে। এসময় বিরোধের মূহুর্তে স্থানীয়রা তাদের আটক করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তাদেরকে আটক করি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য