দীর্ঘদিন ধরে মুক্তির প্রহর গুনছিল চিত্রনায়িকা পপি অভিনীত বেশ কয়েকটি ছবি। তবে এরইমধ্যে আলোর মুখ দেখেছে নারগিস আক্তার পরিচালিত ‘পৌষ মাসের পিরিত’ ছবিটি। এ বছর তার অভিনীত একটি ছবিই মুক্তি পেয়েছে। তবে নতুন বছরে আরো দুটি ছবি নিয়ে ফিরছেন বলে জানালেন তিনি।

পপি বলেন, ‘সোনাবন্ধু’ ছবি দিয়েই নতুন বছরের যাত্রা শুরু হবে। এ ছবির সব কাজ শেষ। ছবিটি নতুন বছরে মুক্তি পাবে। আমি এ ছবিতে রশ্মি নামের একটি চরিত্রে অভিনয় করছি। ছবিতে বেশিরভাগ সময় দর্শক আমাকে সাদা কাপড়ে মোড়ানো বিধবা হিসেবে দেখবে।

এ ছাড়া নতুন বছরের জন্য আরো একটি নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হব। এর নাম এখনই জানাতে চাই না। খুব শিগগির ছবি ও পরিচালকের নাম জানিয়ে দিব। আশা করি, বছরটা নতুন ছবি দিয়েই শুরু হবে। ‘সোনাবন্ধু’ ছবির মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন ডিএ তায়েব। শুভ টেলিফিল্মের ব্যানারে এ ছবির গবেষণায় ড. মাহফুজুর রহমান (চেয়ারম্যান, এটিএন বাংলা), কাহিনি মাহবুবা শাহ্রীন, চিত্রনাট্য ও সংলাপ মমর রুবেল এবং পরিচালনা করছেন জাহাঙ্গীর আলম সুমন।

এ ছবিতে পরীমনিও অভিনয় করেছেন। উল্লেখ্য, এ বছর ছোট পর্দায় পপি সবশেষ একটি বিস্কুট উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের শুভেচ্ছাদূত হয়ে বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে কাজ করেছেন। মুহাম্মাদ মোস্তফা কামাল রাজের পরিচালনায় বিজ্ঞাপনটি বর্তমানে বিভিন্ন টিভিতে প্রচার হয়েছে। আর পপি অভিনীত সবশেষ নারগিস আক্তারের ‘পৌষ মাসের পিরিত’ ছবিটি মুক্তি পায়।

দুই বাংলার বিখ্যাত উপন্যাসিক নরেন্দ্রনাথ মিত্রের ‘রস’ গল্প অবলম্বনে নির্মিত হয় এ ছবিটি। এ ছবিতে পপির বিপরীতে অভিনয় করেন টনি ডায়েস। পপি অভিনীত বেশকিছু ছবি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এগুলো হলো ‘শর্টকাটে বড়লোক’, ‘লীলামন্থন’, ‘দুই ভাইয়ের যুদ্ধ’ ও ‘জীবন যন্ত্রণা’।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য