লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার খোর্দ্দ বিছনদই গ্রামে নিজ নামে খরিদকৃত জমির বসতভিটায় হামলা চালিয়ে ভাঙ্গচুর, লুটপাট ও মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের সদস্যদের পিটিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা।

ঘটনার প্রতিবাদে ও সুষ্ঠ বিচারের দাবীতে বুধবার সন্ধ্যায় হাতীবান্ধা মুক্তিযোদ্ধা সংসদে এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে। প্রতিবাদ সভায় আগামি ২৮ডিসেম্বরের মধ্যে ঘটনার সুষ্ঠ  তদন্ত পূর্বক আসামীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবী জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধাগন।

এলাকাবাসী জানায়, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ফরিদ উদ্দিন ৭ মাস আগে দলিল মূলে ১০ শতক জমি ক্রয় করে সেখানে বসতবাড়ী তৈরি করে বসবাস করে আসছিল। এদিকে ওই জমি থেকে তাদেরকে উচ্ছেদের জন্য গত সোমবার গভীর রাতে স্থানীয় ৮/১০ জনের সন্ত্রাসী দল এসে মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবারের লোকজনকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে বাড়ী ঘর ভেঙ্গে দেয়। এ সময় সন্ত্রাসীরা ওই মুক্তিযোদ্ধার ঘর থেকে নগদ টাকা, প্রায় পাঁচ মন চাল, ছয় মন বাদাম ও ঘরের লেপ তোষক বালিশ নিয়ে যায়।

পরে স্বজনরা তাদের উদ্ধার করে গুরুতর আহত অবস্থায় মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন ও তার স্ত্রী রাবিয়া খাতুন কে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ঘটনার পর থেকে খোলা আকাশের নীচে রাত কাটাচ্ছে অসহায় এই পরিবারটি।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন বাদী হয়ে সন্ত্রাসী সামছুল, সাইফুল, এনছার আলীসহ ৯জনের নামে হাতীবান্ধা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য