সিরিয়ায় স্থায়ী নৌ ঘাঁটি নির্মাণ করবে রাশিয়াসিরিয়ায় একটি স্থায়ী নৌ ঘাঁটি নির্মাণের বিষয়টি প্রায় চূড়ান্ত করে ফেলেছে রাশিয়া। রুশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ ফেডারেশন কাউন্সিলের প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ভিক্তোর ওযেরোভ এ ঘোষণা দিয়েছেন। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব তার কমিটিতে চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে গত অক্টোবরে রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু জানিয়েছিলেন, সিরিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় তারতুস বন্দরে একটি স্থায়ী নৌ ঘাঁটি স্থাপনের পরিকল্পনা নিয়েছে তার দেশ। ১৯৭৭ সাল থেকে তারতুসে অস্থায়ী ঘাঁটি রয়েছে রাশিয়ার।

রাশিয়ার আইন অনুযায়ী পার্লামেন্টের স্থায়ী কমিটিতে অনুমোদনের পর প্রস্তাবটিতে প্রেসিডেন্ট পুতিন সই করবেন। এরপর তা চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য পার্লামেন্ট অধিবেশনে পাঠানো হবে।

সিরিয়ার বন্দরনগরী লাতাকিয়ার কাছে হামেইমিম এলাকায় একটি স্থায়ী বিমান ঘাঁটি রয়েছে রাশিয়ার। লাতাকিয়া শহরটি তারতুস বন্দর থেকে ৮৬ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত। সন্ত্রাস বিরোধী লড়াইয়ে অংশ নেয়ার লক্ষ্যে দামেস্ক ও মস্কোর মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির ভিত্তিতে ২০১৫ সালের আগস্টে ওই ঘাঁটি স্থাপিত হয়। ওই বছরেরই সেপ্টেম্বরে সিরিয়ায় তৎপর বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সরাসরি অংশ নেয়া শুরু করে রাশিয়া। দামেস্কের অনুরোধে সাড়া দিয়ে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে বিমান হামলা চালাচ্ছে মস্কো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য