আগুনে ভষ্মিভূত বোচাগঞ্জ হরিজন পল্লী পরিদর্শন দিনাজপুর সংবাদাতাঃ বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) দিনাজপুর ইউনিট বোচাগঞ্জ থানার পৌর এলাকার রেল কলোনীতে বসবাসরত ১০টি সংখ্যালঘু পরিবারের বাড়ী-ঘর আগুনে ভষ্মিভূত হওয়ার ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

মঙ্গলবার ব্লাস্ট দিনাজপুর ইউনিটের সমন্বয়কারী এ্যাডঃ সিরাজুম মুনিরার নির্দেশে এ্যাডভোকেসি অফিসার এ্যাডঃ মোঃ হারুন-উর-রশিদ ও স্টাফ ল’ইয়ার এ্যাডঃ পিনাক পানি রায় বোচাগঞ্জের রেল কলোনীর হরিজন পল্লীতে যান এবং আগুনে ভষ্মিভূত ১০টি পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন।

ক্ষতিগ্রস্থরা জানায়, গত ৩ ডিসেম্বর দিবাগত রাত আড়াইটা থেকে ৩টার মধ্যে দূর্বৃত্তরা পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগায়। এতে বসবাসরত ৭টি হরিজন পরিবার এবং ৩টি হিন্দু পরিবার সর্বমোট ১০টি পরিবারের বাড়ী-ঘর ভষ্মিভূত হয়। ৮টি শিক্ষার্থীর বই, বহু মূল্যবান জিনিষপত্র পুড়ে যায়।

এতে প্রায় ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতিসাধন হয়। এলাকাবাসী দূর্বৃত্তদের মধ্যে সাবেক কমিশনার আইয়ুব আলীর পুত্র মোঃ জুয়েল রানা ওরফে জুয়েলকে হাতেনাতে ধরে ফেলে এবং পুলিশকে সোপর্দ করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রয়েল বাসফোর পিতা মৃত দিপুয়া বাসফোর বাদী হয়ে বোচাগঞ্জ থানায় এজাহার দায়ের করে।

থানার মামলা নং-১, তারিখ-০৩/১২/২০১৬ইং। তথ্য অনুসন্ধানে ব্লাস্টের কর্মকর্তারা জানান, জুয়েল গত অক্টোবর মাসে দূর্গাপুজা মন্ডবে আক্রোশমূলকভাবে ডেকোরেশনের কাপড় ছিড়ে ফেলে। তখন থেকে এই রেশারেশির সৃষ্টি হয়। জুয়েল এলাকার একজন চিহ্নিত দাগি আসামী।

তার নামে বহু ফৌজদারী মামলা বিচারাধীন রয়েছে। ব্লাস্ট উক্ত ঘটনায় উদ্বিগ্ন। এ ব্যাপারে বাদী পক্ষকে সকল প্রকার আইনি সহায়তা বিনামূল্যে প্রদান করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছে। সেই সাথে মোকদ্দমার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষী ব্যক্তিদের দ্রুত শাস্তি দাবী করেছে এবং সরকারকে ক্ষতিগ্রস্থদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের জোর দাবী জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য