সিরিয়ায় অবরুদ্ধ মানুষ প্রায় ১০ লাখ: জাতিসংঘগত এক বছরে সিরিয়ায় অবরুদ্ধ মানুষের সংখ্যা দ্বিগুণেরও বেশি হয়ে ১০ লাখের কাছাকাছি দাঁড়িয়েছে বলে তথ্য জাতিসংঘের। গত সোমবার জাতিসংঘ ত্রাণ সংস্থার প্রধান স্টিফেন ও’ব্রায়েন নিরাপত্তা পরিষদকে এ তথ্য জানিয়েছেন।  জাতিসংঘ জানিয়েছে, সিরিয়ার সরকারি বাহিনীগুলো প্রায় আট লাখ ৫০ হাজার মানুষকে অবরোধ করে রেখেছে, বাকীদের অবরোধ করে রেখেছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও অন্যান্য সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো।

১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদের মাসিক পর্যালোচনা বৈঠকে ও’ব্রায়েন বলেন, এসব অবরোধ কৌশলের মধ্যে অস্পষ্ট বা জটিল কিছু নেই। আত্মসমর্পণ বা পালিয়ে যেতে বাধ্য করতে বেসামরিকদের বিচ্ছিন্ন করে অনাহারে রাখা হয়েছে, চিকিৎসার বা মানবিক সহায়তার কোনো সুযোগ না দিয়ে তাদের ওপর বোমাবর্ষণ করা হচ্ছে।

বেসামরিকদের ওপর হামলা বন্ধ, মানবিক ত্রাণ সরবরাহ নিশ্চিত করা ও অবরোধ তুলে নেওয়ার ডাক দিয়ে করা জাতিসংঘের প্রস্তাবগুলো বাস্তবায়নে নিরাপত্তা পরিষদকে জোরালো পদক্ষেপ নিতে আহ্বান জানিয়েছেন ও’ব্রায়েন।

তিনি বলেন, আপনাদের প্রত্যেকের জোরালো সমর্থন না থাকলে, সীমা লঙ্ঘিত হতেই থাকবে; আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন পদদলিত হবে; যুদ্ধাপরাধও সংঘটিত হবে। আপনারা পদক্ষেপ না নেওয়া পর্যন্ত কোনো জবাবদিহিতাও থাকবে না। প্রায় ছয় বছর ধরে চলা সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ অবসানের প্রক্রিয়া নিয়ে মতভেদে বিভক্ত হয়ে আছে নিরাপত্তা পরিষদ। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদকে রক্ষা করতে জাতিসংঘে বেশ কয়েকটি প্রস্তাবে ভেটো দিয়েছে সিরিয়ার মিত্র রাশিয়া, তাতে সমর্থন জানিয়েছে চীন। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স আসাদকে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের মুখোমুখি করতে চায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য