রংপুরে সড়ক চারলেন প্রসস্তকরণে বাঁধা সৃষ্টিকারী তিন ভবন মালিকের মধ্যে আহার ভবনের সামনে ময়লার স্তুপ ফেলে প্রতিবাদ জানিয়েছে কে বা কারা। গতকাল রোববার সকালে ময়লা আবর্জনা ট্রাকে করে এনে ওই ভবনের সামনে ফেলে স্তুপ করে রাখা হয়। জানা যায়, নগরীকে আধুনিকায়ন করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে মেডিকেল মোড় হতে শাপলা ব্রীজ পর্যন্ত সড়ক কে চারলেন প্রসস্তকরণের কাজ হাতে নেয় সড়ক ও জনপথ ভবন। নগরীর পায়রা চত্বর পয়ন্ত চারলেন প্রসস্তকররে কাজ সমাপ্ত হলেও তিন ভবন মালিক উপযুক্ত ক্ষতিপূরুণ চেয়ে হাইকোর্টে রিট মামলা দায়ের করার কারণে পায়রা চত্বর থেকে শাপলা ব্রিজ পর্যন্ত সড়ক প্রসস্তকরণের কাজ থমকে দাঁড়ায়। ফলে সড়ক প্রসস্তকরণের কাজ নিয়ে শংকা দেখা দেয় জনমনে। ওই তিন ভবন মালিকের বিরুদ্ধে জনগণকে সোচ্চার হয়ে তাদেরকে রংপুর থেকে বিতাড়িত করার আহবান জানিয়ে গত ১৩ মার্চ রংপুর সিটি মেয়র নাগরিক সমাজের আয়োজনে এক পথসভায় বক্তব্য দেন। এরপর গতকাল ররিবার সকালে কে বা কারা আকষ্মিকভাবে আহার ভবনের সামনে আবর্জনার স্তুপ ফেলে ভবন মালিকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায়। এদিকে সুউচ্ছ ভবনের সামনে ময়লা ¯ত’প ফেলায় ভোগান্তিতে পড়ে ভবনের বিভিন্ন তলায় থাকা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং বিভিন্ন প্রয়োজনে আসা গ্রাহকেরা। এ বিষয়ে আহার ভবনের মালিক জিজুর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে ভবনে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে রংপুর সিটি কর্পোরেশন মেয়র সরফুদ্দিন আহম্মেদ ঝন্টু বলেন, রংপুরের উন্নয়নকামী সচেতন জনগণ সোচ্চার হয়ে ওই ভবনের সামনে আবর্জনা ফেলতে পারে। জনগণ যদি ওই ভবনের সামনে আবর্জনা ফেলে তাহলে আমার কি করার আছে। তবে বিষয়টি তিনি দেখবেন বলে এসময় জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য