arrestআটোয়ারী (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি : পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পড়ে পড়ে ৯ ব্যাক্তি মারাত্মক অসুস্থ অবস্থায় আটোয়ারী হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত ১৩ নভেম্বর রবিবার রাতে উপজেলার ঐতিহ্যবাহী আলোয়াখোয়া রাশ মেলা উদ্বোধনের কিছুক্ষণ পড়েই মেলায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। জানাগেছে, প্রতিবছরের ন্যায় এবারও দুর-দুরান্ত হতে গরু-মহিষ ব্যবসায়ীসহ হাজার হাজার ক্রেতা-বিক্রেতা এসে আলোয়াখোয়া রাশ মেলায় অস্থায়ী ছাপড়া (ধুরা) তৈরী করে গরু মহিষ ক্রয়-বিক্রয় শুরু করে।

এদিকে অজ্ঞান পার্টীর সদস্যরা সুযোগ বুঝে মেলা উদ্বোধনের পর পরই রাত প্রায় ৯টা সময় দুটি ধুরায় কৌশলে প্রবেশ করে ব্যবসায়ীদের রাতের খাবারের সাথে বিষাক্ত নেশাজাতীয় দ্রব্য ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে ওৎ পেতে থাকে। ধুরার ওই ব্যবসায়ীরা রাতের খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে অজ্ঞানপার্টীর সদস্যরা ধুরায় প্রবেশ করে ব্যবসায়ীদের টাকা-পয়সা খুঁজতে থাকে। ইতিমধ্যে পার্শ্ববর্তী ধুরার লোকজন অজ্ঞান পার্টীর উপস্থিতি টের পেলে চিৎকার দেয় এসময় দুস্কৃতিকারীরা চম্পট দিলেও তাৎক্ষনকিভাবে কুমিল্লা জেলার রামকৃষœপুর এলাকার রামপুর গ্রামের আক্কাশ আলী পুত্র হেলাল উদ্দীন (৩০) কে হাতেনাতে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

বিষাক্ত নেশাজাতীয় দ্রব্য মেশানো খাবার খেয়ে জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার হাজরাডাংগা এলাকার মৃত পন্ডিত আলীর পুত্র কবেদ আলী (৩০), কমরেশ আলী (৩৫), তহিজদ্দিনের পুত্র হাফিজ উদ্দীন (৪৫), আকবর আলীর পুত্র রবিউল (৫০), শামসুল হকের পুত্র ইয়ার হোসেন (৩০), পঞ্চগড় সদর উপজেলার বোদা পাড়া এলাকার কেরামত আলীর পুত্র রাসেল (২৪), বজরাপাড়া গ্রামের মৃত জুমার উদ্দীনের পুত্র তিমির উদ্দীন (৬০), শাহিরুলের পুত্র ফজলুল করিম (৬০), বসির উদ্দীনের পুত্র সিরাজুল ইসলাম (৬৫) কে মারাত্মক অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে আটোয়ারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ মওলা বকস্ চৌধুরী জানান, অজ্ঞান পার্টীর খপ্পড়ে পড়া ৯ ব্যক্তির খাবারে বিষক্রিয়াসহ ঘুমের ঔষধ প্রয়োগ করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে ৪জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাও সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এরা হলেন- রাসেল (২৪), তিমির উদ্দীন (৬০), ফজলুল করিম (৬০), সিরাজুল ইসলাম (৬৫)। আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, অজ্ঞান পার্টীর এক সদস্যকে তাৎক্ষনিকভাবে আটক করা হয়েছে। সে বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে আটোয়ারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সে সুস্থ হলেই জানা যাবে তার দলে আর কে কে ছিল।

উল্লেখ, ঘটনার পর পরই উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুর রহমান সহ মেলা কমিটির সভাপতির প্রতিনিধি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রাফা মোহাম্মদ আরিফ, মেলার সাধারণ সম্পাদক মোঃ এমদাদুল হক, অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমিনুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ তৌহিদুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মোঃ আনিসুর রহমান, আটোয়ারী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ ইউসুফ আলী, আটোয়ারী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি জিল্লুর হোসেন সরকার প্রমুখ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং মেলায় আগত ব্যবসায়ীদের সচেতন থাকার পরামর্শ দেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য