যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ সতর্কতা তুরস্কেরডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বিক্ষোভের প্রেক্ষাপটে দেশটিতে তাদের নাগরিকদের চলাফেরায় সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দিয়েছে তুরস্ক সরকার।

যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণের ক্ষেত্রেও বিষয়টি মাথায় রাখতে নাগরিকদের প্রতি আঙ্কারার এ আহ্বান এসেছে বলে শনিবার সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়।

গত মঙ্গলবারের ভোটে রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্পের জয়ের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ চলছে। নিউ ইয়র্ক, শিকাগো, ফিলাডেলফিয়া, মিয়ামি, লস এঞ্জেলেস, সিয়াটল, ওকল্যান্ড ও পোর্টল্যান্ডসহ বিভিন্ন শহরে নিয়মিত বিক্ষোভ হচ্ছে। কয়েক জায়গায় সহিংসতা ও গ্রেপ্তারের ঘটনা ঘটেছে।

তুরস্কের সতর্কতায় ট্রাম্পের কথা উল্লেখ করা না হলেও মঙ্গলবারের নির্বাচনের পরে অস্থিরতা শুরু হওয়ার কথা বলা হয়েছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, “মাঝে মাঝে বিক্ষোভ সহিংস ও অপরাধপ্রবণ হয়ে উঠছে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও বিক্ষোভাকারীদের ধরছে।”

পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রে ‘বর্ণবাদী ও অন্য দেশের মানুষের প্রতি বিদ্বেষমূলক ঘটনাও বেড়েছে’ বলে তুরস্কের পর্যক্ষেণ।

“এই ঝুঁকি বিবেচনায় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ও ভ্রমণকারী আমাদের নাগরিকদের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম, ওয়াশিংটনে আমাদের দূতাবাস ও আমেরিকান আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সতর্কতা মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছি।”

পাশাপাশি নাগরিকদের বিক্ষোভ থেকে দূরে থাকা, কর্মস্থলে নিরাপত্তা বৃদ্ধি এবং বর্ণবাদী ও বিদ্বেষমূলক হামলার ঘটনা ঘটলে শান্ত থেকে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

তুরস্কে কয়েকটি সন্ত্রাসী হামলার প্রেক্ষাপটে গত মাসে দেশটিতে নাগরিকদের ভ্রমণে সতর্কতা জারি করে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য