Dhanকাহারোল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ কাহারোলে আমন ধান কাটা মাড়াইয়ের ধুম পড়েছে গ্রাম বাংলায়। দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় চলতি আমন মৌসুমের আমন ধান কাটা মাড়াই ইতোমধ্যে শুরু করেছে গ্রাম বাংলার কৃষকরা।

এবার আমন ধানের আশঙ্খানুরুপ ফলন ও মুল্য পাওয়ায় কৃষকের মুখে হাঁসি ফুটে উঠেছে। ঋতু চক্র হিসেবে বর্তমানে চলছে কার্তিক মাস হেমন্ত কাল। হেমন্তকালে গ্রাম বাংলায় নবান্ন উৎসবে প্রস্তুতি নিচ্ছেন গ্রামীন জনপদের লোকজনেরা। এখন মাঠ জুড়ে সোনালী ধান বাতাসে বইছে। এবং মাঠ জুড়ে ধানের মৌ মৌ ঘ্রাণে ভরে উঠছে কৃষকের প্রাণ।

এরমধ্যে শুরু হয়েছে চলতি আমন মৌসুমের ধান কাটা মাড়াই ও বিক্রি। বর্তমানে বাজারে চিকন ধানের চেয়ে মোটা ধানের চাহিদা ব্যাপক পরিলক্ষিত হয়েছে। কাহারোল উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে বিভিন্ন গ্রাম  সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, গ্রাম বাংলার কৃষকরা তাদের অতি কষ্টের ফসল চলতি মৌসুমে আমন ধান কাটার পর জমিতে সারিবদ্ধ ভাবে লাইন করে খড় রোদ্রে শুকাচ্ছেন কৃষকরা।

ডাবোর ইউনিয়নে মুকুন্দপুর গ্রামের কয়েকজন কৃষক মোঃ রমিজ উদ্দীন, হরিদাশ দাস রায় ও পাহাড়পুর গ্রামের বিনয় কুমার রায় জানান, এবার আমন ধান চাষাবাদের সময় তেমন বৃষ্টি পাত না হলেও ধানের শীষ বের হওয়ার পূর্বে পর্যাপ্ত পরিমান বৃষ্টি পাত হওয়ার কারণে এবং রোগ বালাই কম হওয়ায় ও সার কীটনাশক এর কোন সংকট হয়নি।

এর ফলে আমরা কৃষকরা আমাদের জমিতে সঠিক সময়ে সঠিক ভাবে কীটনাশক ও সার প্রয়োগ করতে পারায় এবার আমন ধানের বাম্পার ফলনের আশা করছি আমরা। অত্র উপজেলায় বর্তমানে আমন ধান কাটা মাড়াই ও বিক্রি করছে কৃষকরা। তবে অন্য বছরের তুলনায় এবছর ধানের ন্যায্য মুল্য পাওয়ার আশা করেছেন কৃষক।

এ উপজেলায় বিভিন্ন জাতের ধান চাষাবাদ করছেন কৃষকরা। গ্রাম অঞ্চলে ধান ক্ষেত গুলোতে গিয়ে দেখা গেছে, পুরুষ শ্রমিকের চেয়ে নারী শ্রমিকরা ধান কাটছে এবং মাথায় করে কৃষকের আঙ্গিনায় তুলছেন।

এদিকে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ শামীম হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চলতি আমন মৌসুমে অত্র উপজেলায় ১৩ হাজার ৪ শত ৫৫ হেক্টর জমিতে লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করা হলেও অর্জিত হয়েছে ১৪ হাজার ৭ শত ৫০ হেক্টর জমিতে।

তবে তিনি আরো জানান, গত বছরের চেয়ে এ বছর পোকা-মাকড়ের আক্রমন কম ও সার-কীটনাশকের কোন সংকট হয়নি। তাই এবার কৃষকরা তাদের জমিতে ধান রোপন করে এখন সেসব আমন ধান কাটতে শুরু করেছেন ইতো মধ্যে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য