ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর, অগ্নি সংযোগমাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁওঃ ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নারগুন পোকাতি কালি মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর ও দূর্গা মন্দিরে অগ্নি সংযোগ করেছে দূবৃর্ত্তরা। শুক্রবার ভোর রাতে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলা নারগুন পোকাতি দূর্গা মন্দির বৃহস্পতিবার রাতে হিন্দু সস্প্রদায়ের কীর্তন অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার ভোর বেলা এলাকার লোকজন দেখতে পায় দূর্গা মন্দিরের ভেতর থেকে প্রতিমা টেনে নিয়ে অগ্নি সংযোগ করেছে কে বা কাহারা।

এ সময় মন্দিরের ভেতর একটি কিতাব পুড়িয়ে দেয় দূবৃর্ত্তরা। পরে ওই এলাকার পাশের একটি কালি মন্দিরে গিয়ে দেখে সেখানকার কালির মূর্তিও ভাংচুর করেছে দূবৃর্ত্তরা। স্থানীয় লোকজন ঠাকুরগাঁও থানায় খবর দিলে পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর, অগ্নি সংযোগ
এ ঘটনার পর এলাকার হিন্দু সস্প্রদায়ের লোকজনের মধ্যে আংতঙ্ক বিরাজ করছে।

এলাকার লোকজন জানান, ঠাকুরগাঁও শান্তিপূর্ন এলাকা। এই ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের দ্রুত আইনের আওয়াত আনা হোক।

পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ ঘটনা স্থল পরিদর্শন শেষে ওই এলাকার মানুষকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান। ঘটনার সাথে যারা জরিত তাদের নাম পুলিশকে গোপনভাবে জানানোর জন্য অনুরোধ করেন।

ঠাকুরগাঁও সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মশিউর রহমান জানান, আমরা দ্রুত দূবৃর্ত্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা করছি। এটা বিছিন্ন ঘটনা কোন সাম্প্রদায়িক বিষয় নয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য