সুন্দরগঞ্জে বিদ্যালয় ঘেষে বিদ্যুতের প্রধান সঞ্চালন লাইনগাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের উপর ঘেষে বিদ্যুতের প্রধান সঞ্চালন লাইন স্থাপিত হওয়ায় দি¦তল ভবনের কাজ স্থবির হয়ে পড়াসহ কোমলমতি শিশুদের জীবন ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, মধ্য কঞ্চিবাড়ি গ্রামে শিশুদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে স্থানীয় শিক্ষানুরাগীরা  ১৯৯১ সালে মধ্য কঞ্চিবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন করেন। সরকারী ভাবে বিদ্যালয়ে ৩ কক্ষ বিশিষ্ট ভবন নির্মাণ হবার কিছুদিন পর ভবনের উপর দিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ বিদ্যুতের প্রধান সঞ্চালন লাইন স্থাপন করেন। এ অবস্থা চলতে থাকায় বিদ্যালয়টি জাতীয় করণ করা হয়।

নব্য জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয়টিতে ৩’শতাধিক শিক্ষার্থী থাকায় সরকার সাড়ে ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে শ্রেণী কক্ষ সম্প্রসারণের জন্য দুই কক্ষ বিশিষ্ট দ্বি-তল ভবনের কাজ হাতে নেয়। এদিকে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান আশরাফ টেড্রার্স কাজ শুরু করলে বিদ্যুতের প্রধান সঞ্চালন লাইন অপসারণ না করায় নির্মাণ কাজ ব্যাহত হচ্ছে।

এ ব্যাপারে পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম সোলায়মান হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সঞ্চালন লাইনটি সরানোর প্রক্রিয়া করা হলেই তা সরানো হবে। উপজেলা প্রকৌশলী আবুল মনছুর জানান, সঞ্চালন লাইনটি স্থানান্তর করা না হলে গোটা ভবনটিই ঝুঁকিপুর্ণ। প্রধান শিক্ষক শাহ্ আবু রায়হান জানান, সঞ্চালন লাইনটি স্থানান্তর করার জন্য দীর্ঘদিন থেকে পল্লী বিদ্যুত অফিসে যোগাযোগ করেও কোন সুফল পাওয়া যাচ্ছে না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য