আলেপ্পোয় যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষে আবার লড়াই শুরুআলেপ্পোয় সিরিয়ার সরকারি বাহিনী এবং সন্ত্রাসীদের মধ্যে আবার লড়াই শুরু হয়েছে। রাশিয়ার ঘোষিত একতরফা যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরই সরকারি বাহিনী এবং সন্ত্রাসীদের মধ্যে দ্বিধাবিভক্ত সিরিয়ার এ নগরীতে যুদ্ধ শুরু হয়ে যায়।

রাশিয়া এর আগে তার নিজের ঘোষিত যুদ্ধবিরতির মেয়াদ একদিন বাড়িয়েছিল এবং গতকাল সন্ধ্যায় সে মেয়াদও শেষ হয়ে যায়। সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রিত আলেপ্পোর পূর্ব অংশে আটকে পড়া নিরীহ বেসামরিক নাগরিক এবং বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের সরে যাওয়ার সুযোগ করে দেয়ার লক্ষ্যে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়েছিল।

যুদ্ধবিরতি চলার সময় বেসামরিক নাগরিকদের সরে যাওয়ার জন্য আটটি মানবিক করিডর স্থাপন করা হয়েছিল। অবশ্য আটকে পড়া বেসামরিক ব্যক্তিদেরকে এ সব করিডর ব্যবহার করে বের হতে দেয়নি জঙ্গিরা।

সন্ত্রাসীরা নগরীর বেসামরিক নাগরিকদের মানব ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে এবং তাদেরকে নগরী ত্যাগে বাধা দিয়েছে। রুশ সেনাবাহিনীর শীর্ষস্থানীয় এক কর্মকর্তা এ কথা জানিয়েছেন।

এদিকে, আলেপ্পোর বিভক্ত সীমানায় প্রচণ্ড যুদ্ধ শুরুর কথা জানিয়েছে কথিত মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস। উভয় পক্ষ ভারী কামানের গোলা বিনিময় করছে বলে জানানো হয়েছে।

সিরিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম নগরী আলেপ্পো ২০১২ সাল থেকে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে আছে। এ নগরীর পশ্চিম অংশ সরকারি বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আর পূর্ব অংশ দখল করে রেখেছে সন্ত্রাসীরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য