ভূমিদস্যু কতৃক বনাঞ্চলে অবৈধভাবে পুকুর খনন করে বালু পাথর উত্তোলননীলফামারীর ডিমলায় সদর ইউনিয়নের রামডাঙ্গা বিট অফিসের জমিতে অবৈধভাবে পুকুর খনন করে বালু পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে। বনবিভাগের জমিতে জোরপুর্বক দখল করে বালু পাথর উত্তোলন করার ফলে বনবিভাগের জমি উজার করা হচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ডিমলা সদর ইউনিয়নের রামডাঙ্গা মৌজার ১ নং খতিয়ান জেএল নং ৩২, ১৬৭ দাগে ৪০ শতাংশ জমি দখল করে পুকুর খনন(পাথর বালু) উত্তোলন করা হচ্ছে। পুকুর খনন ও পাথর বালু উত্তোলনের ফলে পরিবেশ দুষনসহ বনবিভাগের ৫০ লক্ষ ১০ হাজার ৫শ টাকা ক্ষতি হয়েছে মর্মে ডিমলা বন বিট কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে অভিযোগ প্রদান করেন। আব্দুর রউফের বিরুদ্দে সরকারী বনবিভাগের জাগয়া দখল ও গাছ বাশ বিক্রির একাধিক অভিযোগে রয়েছে।

ডিমলা বনবিট অফিসার হাসানুজ্জামান বলেন রামডাঙ্গা গ্রামের ভ’মি দশ্যু নামে পরিচিত অহির উদ্দিনের পুত্র আব্দুর রউফ জোর পুর্বক বনের সম্পতিতে নিজ খেয়াল খুশি অনুযায়ী পুকুর খনন করে বালু ও পাথর উত্তোলন করছে। এ ব্যাপারে বন কর্মকর্তা প্রতিবাদ করলে তাকে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেয়ার হুমকি প্রদান করে মর্মে স্বীকার করেন। তিনি আরও বলেন রামডাঙ্গা বিট অফিসের অধিকাংশ জমি আব্দুর রউফ প্রভাব খাটিয়ে দখল করে নিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য